শাকিবের চেহেরার মতো আরো এক ছেলে নিয়ে হাজির হচ্ছে চিত্র নায়িকা রাত্রি

ডলিউডের কিং খান শাকিব খানকে নিয়ে আলোচনা যেন থামছেই না। শাকিব-বুবলির সন্তান প্রকাশ্যে আসার পর ফের আলোচনা শুরু হয়েছে শাকিবের প্রথম সন্তান রাহুল খানকে নিয়ে। সেই সন্তানের জন্ম হয়েছে আরেক চিত্রনায়িকা রাত্রির গর্ভে।

এর আগেও, ২০১৭ সালে চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস ও শাকিব খানের সন্তান আব্রাম খান জয় প্রকাশ্যে আসলে রাহুলকে নিয়ে আলোচনা হয়।

সম্প্রতি শাকিব-বুবলির সন্তান শেহজাদ খান বীর প্রকাশ্যে আসলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে চিত্রনায়িকা রাত্রির একটি ভিডিও ভাইরাল হয়।

ভাইরাল হওয়া ওই ভিডিওতে চিত্রনায়িকা রাত্রি বলেন, আমার ছেলেটাও শাকিবের মতো হয়েছে। একই রকম, হুবহু একই রকম। হিরোর (শাকিব) যেমন চলাফেরা, কথাবার্তা একদম হুবহু আমার ছেলেটাও ওরকম। আমি ওরে (শাকিব) অনেক ভালোবাসি। মাঝে মধ্যে তার কথা মনে পড়লে রাতে ঘুমাতে পারি না।

তিনি কান্নাজড়িত কণ্ঠে বলেন, ভালোবাসা কি জিনিস, একটা পুরুষ সঙ্গী নেই। একা একা একটা সন্তান লালনপালন করছি অনেক কষ্টে। তিনি বলেন, অপুর (অপু বিশ্বাস) কাছে যাওয়ার পরই আমার সঙ্গে সব ধরনের যোগাযোগ বন্ধ করে দিয়েছে। আমার মোবাইল নম্বর ব্লক করে দিয়েছে। আমি সত্যিই ওকে ভালোবাসি।

রাত্রি বলেন, আমি দোয়া করি শাকিব এমপি হোক। আমি কষ্টে থাকলেও আমি চাই ও (শাকিব) আরও বড় লেভেলে যাক। আমি আল্লাহর কাছে দোয়া করি।

তিনি বলেন, শাকিব একটা ভালো ও ভদ্র ছেলে, আমি ওকে পছন্দ করি। আমি ওকে পঁচাবো না, প্রশ্নই ওঠে না আমি ওকে পঁচাবো। আমি ওর জন্য মরতেও প্রস্তুত আছি।

তিনি আরও বলেন, আমি অনেক কষ্টে আছি। পার্লারে কাজ করি। আমার ছেলে রাহুল মেকানিক। ছেলে আমাকে মিডিয়ার সামনে এসব বিষয়ে কথা বলতে না করেছে।

রাত্রি বলেন, যে ভালোবাসার কারণে এতোগুলো বছর চুপ থেকেছি, এখন আর মুখ খুলে কী লাভ? শাকিব যদি কোনোদিন বুঝতে পারে, ফিরে আসে তাহলে আমার আর কিছু চাই না। এর বাইরে মুখ খুলিনি কারণ আমি চাইনি আমার হিরোর (শাকিব খানের) কোনো ক্ষতি হোক।

নিজেকে শাকিবের প্রথম সন্তানের মা হিসেবে দাবি করে রাত্রি আরও বলেন, আমি আর আমার আল্লাহ সবচেয়ে ভালো জানেন। আমি জোর গলায় বলতে চাই শাকিব খানের প্রথম সন্তানের মা আমি। এটা শাকিবও অস্বীকার করতে পারবে না।

তবে এ বিষয়ে শাকিব খান কখনো কোথাও মন্তব্য দেননি।

জানা যায়, শাকিব খান ও রাত্রীর বিয়ে হয় ২০০৮-৯ সালে। তখন একটি জাতীয় দৈনিকে তাদের বিয়ের খবর ছবিসহ প্রকাশ পায়। যদিও শাকিব খান সেই বিয়ে অস্বীকার করেন। তিনি সংশ্লিষ্ট পত্রিকার সাংবাদিকদের হুমকি দেন বলেও জানা গেছে। রাত্রির গর্ভে প্রথম সন্তান জন্ম নিলেও অভিযোগ রয়েছে শাকিব তাদের দেখভালের দায়িত্ব নেননি।

Facebook Comments Box