লক্ষ্মীপুরে দুর্বৃত্তদের গুলিতে যুবলীগ নেতার মৃত্যু,প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল

লক্ষ্মীফুর প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরে আধিপত্য বিস্তরকে কেন্দ্র করে দুর্বৃত্তদের গুলিতে আলাউদ্দিন পাটওয়ারী (৪৫) নামে যুবলীগের এক নেতা নিহত হয়েছেন। শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) রাত ১০টার দিকে সদর উপজেলার বশিকপুর ইউনিয়নের পোদ্দার বাজার দিঘিরপাড় এলাকায় তার ওপর গুলি ছোড়ার ঘটনা ঘটে। হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান। নিহত আলাউদ্দিন বশিকপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সহ-সভাপতি এবং একই ইউনিয়নের রশিদপুর গ্রামের সাদেক পাটওয়ারীর ছেলে। স্বজনরা জানান, আলাউদ্দিন মোটরসাইকেলে করে বাড়ির দিকে যাচ্ছিলেন। পোদ্দার বাজারের কাছেই দিঘিরপাড়ে পৌঁছালে ওত পেতে থাকা দুর্বৃত্তরা তাকে গুলি করে। গুলির শব্দ শুনে স্থানীয়রা এগিয়ে আসেন। তাকে পাশের একটি পুকুরে পাওয়া যায়। সেখান থেকে আলাউদ্দিনকে উদ্ধার করে প্রথমে পোদ্দার বাজারে একটি হাসপাতালে নেওয়া হয়। অবস্থা গুরুতর হওয়ায় পরে তাকে জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। জেলা হাসপাতালে যাওয়ার আগেই তার মৃত্যু হয় বলে জানান চিকিৎসক। নিহতের চাচা জামাল হোসেন বলেন, ঘটনাস্থলে আলাউদ্দিন মুঠোফোনে কারো সঙ্গে কথা বলছিলেন। পাশের বাগানে অন্ধকারে ওত পেতে থাকা দুর্বৃত্তরা গুলি করে তাকে হত্যা করে। রাজনৈতিক প্রতিহিংসার জের ধরে এ ঘটনা ঘটতে পারে। এদিকে যুবলীগ নেতার হত্যার প্রতিবাদে মধ্য বিক্ষোভ মিছিল করেছেন আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা কর্মীরা ।  জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সংসদ সদস্য নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন দাবি করেছেন, এ ঘটনায় বিএনপির লোকজন জড়িত। তিনি বলেন, দীর্ঘদিন থেকে বিএনপির সন্ত্রাসীরা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের হুমকি দিচ্ছে। এ হত্যাকাণ্ড তারা ঘটিয়েছে। বিএনপির সন্ত্রাসীরা ফের তারা মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে। এ ঘটনায় দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাই। লক্ষ্মীপুর জেলা পুলিশ সুপার মাহফুজ্জামান আশরাফ সাংবাদিকদের বলেন, খবর পেয়ে হাসপাতালে গিয়ে পরিবারের লোকজনের সঙ্গে কথা বলেছি। আমি ঘটনাস্থলে যাব। এরপর বিস্তরিত ব্যাবস্থা নিব ।

এদিকে স্থানীয় সূত্র জানায়, আলাউদ্দিন বশিকপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও সন্ত্রাসী বাহিনী প্রধান কাশেম জিহাদীর চাচাতো ভাই। তিনি জিহাদীর সহযোগী ছিলেন।

Facebook Comments Box