রেকর্ড তাপমাত্রা বৃদ্ধিতে বিপর্যস্ত ফ্রান্সসহ গোটা ইউরোপ

আলোকিত সকাল ডেস্ক

ইউরোপজুড়ে প্রবাহিত হচ্ছে তীব্র তাপপ্রবাহ। এ যেন নরকাগ্নির উত্তাপ! আর এই দাবদাহের মধ্যে রেকর্ড তাপমাত্রা বৃদ্ধির প্রভাবে বিপর্যস্ত হয়ে উঠেছে ফ্রান্সের জনজীবন। শুক্রবার (২৮ জুন) ইতিহাসের সর্বোচ্চ তাপপ্রবাহের সম্মুখীন হয়েছে ফরাসি জনগণ। দেশটির দক্ষিণাঞ্চলের গড় তাপমাত্রা ছিল ৪৫ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। যা ভেঙে দিয়েছে অতীতের রেকর্ডও।

শনিবার (২৯ জুন) ব্রিটিশ গণমাধ্যম ‘বিবিসি নিউজ’ জানায়, এবারের তাপমাত্রা আগের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে যাওয়ায় প্রত্যেকেই ঝুঁকির মধ্যে রয়েছেন বলে এরই মধ্যে সতর্ক করেছেন দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী। এমনকি তীব্র গরমের কারণে দক্ষিণাঞ্চলের চার রাজ্যে নজিরবিহীন ‘রেড অ্যালার্ট’ জারি করেছে ফরাসি আবহাওয়া অধিদপ্তর। যদিও দেশের বেশিরভাগ অঞ্চলে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সতর্কতা হিসেবে এখনো ‘অরেঞ্জ এলার্ট’ জারি করা আছে।
পিভোটালের স্যাটেলাইট ম্যাপে তাপপ্রবাহে বিপর্যস্ত ইউরোপীয় অঞ্চল- ছবি:ওয়াশিংটন পোস্ট

আবহাওয়াবিদদের মতে, উত্তর আফ্রিকা থেকে বয়ে আসা গরম বাতাসই ইউরোপের এই তাপ প্রবাহের জন্য দায়ী।

এবার ইউরোপের দেশ ফ্রান্সসহ পোল্যান্ড, জার্মানি এবং চেক প্রজাতন্ত্রের মতো রাষ্ট্রগুলোতেও তাপমাত্রা রেকর্ড গড়েছে। তাছাড়া তীব্র তাপপ্রবাহের কারণে গত ২০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ দাবানলের সম্মুখীন হয়েছে স্পেন। দেশটির কাতালুনিয়ার বিস্তীর্ণ বনাঞ্চল এরই মধ্যে পুড়ে ছাই হয়ে যাচ্ছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে দমকল কর্মীরাও হিমশিম খাচ্ছেন। যার অংশ হিসেবে স্পেনের মোট আটটি প্রদেশে জারি হয়েছে ‘রেড এলার্ট’।

এর আগে ২০০৩ সালে ফ্রান্সের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৪৪ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তখন অসহনীয় গরমে মৃত্যু হয়েছিল প্রায় হাজার খানেক লোকের।

আস/এসআইসু

Facebook Comments Box