রিফাত হত্যায় আটক ৭, সবাইকে ধরা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

আলোকিত সকাল ডেস্ক

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, বরগুনার চাঞ্চল্যকর রিফাত হত্যায় জড়িত ৭ জনকে আটক করা হয়েছ। একটু অপেক্ষা করুন, জড়িত সবাই ধরা পড়বে। তিনি বলেছেন, সরকারের কাছে অপরাধীর রাজনৈতিক বিষয় বিবেচ্য নয়, প্রাধান্য নয়। বিবেচ্য হচ্ছে তার অপরাধ।

আজ রোববার (৩০ জুন) বিকালে সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের নিজ কক্ষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

‘স্ত্রীর সামনে কুপিয়ে রিফাত শরীফকে হত্যার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশের পরও চার দিন অতিবাহিত হয়েছে, এখনও এই মামলার প্রধান আসামিরা ধরা পড়েনি’- এ বিষয়ে জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এ পর্যন্ত এই নৃশংস হত্যার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় এজহারভুক্ত ৩ জন আসামিসহ মোট ৭ জনকে আটক করা হয়েছে। বরগুনায় হত্যাকারীদের ধরতে বিশেষ অভিযান পরিচালিত হচ্ছে। একটু অপেক্ষা করুন, সবাই আটক হবে। যে ঘটনা তারা ঘটিয়েছে, তা দেশের মানুষদের বিবেককে নাড়া দিয়েছে, মানুষের হৃদয়ে দাগ কেটেছে, এটা মেনে নেয়া যায় না। আমার বিশ্বাস, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর যারা অভিযানে আছে, তারা এতে কোনো ছাড় দেবেন না।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, আমাদের কাছে, সরকারের কাছে কোনো অপরাধীর রাজনৈতিক পরিচয় বিবেচ্য নয়। তার নৃশংসতা বিবেচ্য, তার অপরাধটা বিবেচ্য বিষয়। হোক না সে কোনো আওয়ামী লীগ নেতার দুঃসম্পর্কের আত্মীয়, এমন ঘটনায় সেটা কি কারো বিবেচ্য বিষয় হওয়া উচিত।

বরগুনার পুলিশ প্রশাসনের অবহেলা ও স্থবিরতার বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে মন্ত্রী বলেন, বিষয়টি আমাদের নজরে আসার সঙ্গে সঙ্গে আমরা ডিআইজি বরিশালকে তদন্ত করে দেখতে বলেছি। অবহেলা থাকলে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এজাহারভুক্ত আসামিদের মধ্যে সাগর নামে একজন আছেন, যিনি পুলিশ কনস্টেবল হিসেবে ভর্তি পরীক্ষা দিয়েছেন, এ বিষয়ে জানতে চাইলে আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, এই নৃশংসতার সঙ্গে জড়িত ছিলেন এমন প্রমাণ মিললে তার তো আর পুলিশে চাকরি হওয়ার কোনো সুযোগ নেই।

আস/এসআইসু

Facebook Comments Box