যে ম্যাচে তাকিয়ে টাইগাররা

আলোকিত সকাল ডেস্ক

দু’দলের জার্সির রঙ আকাশি-নীলের কাছাকাছি, তাই গেরুয়া রঙের অ্যাওয়ে জার্সি গায়ে জড়িয়েই আজ মাঠে নামবেন বিরাট কোহলিরা। রঙে বিজেপির ছোঁয়া- কংগ্রেস থেকে এমন একটি অভিযোগ আসার পর আজকের ইংল্যান্ড-ভারত ম্যাচ ঘিরে বার্মিংহামে আসা ভারতীয় সাংবাদিকদের কাছে এই জার্সি ইস্যুটিই হটকেক! কেননা আজ জিতলেই সেমিফাইনাল নিশ্চিত ভারতের, কোহলি এসে সংবাদ সম্মেলনে বলেও গেছেন, ধোনির শ্নথ ব্যাটিং কিংবা বিজয় শঙ্করকে নিয়ে তার কোনো দুশ্চিন্তা নেই। কপালে ভাঁজ তো ইংল্যান্ডের, হাতে থাকা দুই ম্যাচের একটিতে হারলেই বাংলাদেশ কিংবা পাকিস্তান শেষ চারে উঠে যেতে পারে। এজবাস্টনের আজকের ম্যাচে তাই প্রচণ্ড আগ্রহভরে তাকিয়ে থাকবে টাইগাররা। এমনিতে নিজেদের খেলা না থাকলে হোটেলরুমের টিভিতেও অন্য দেশের খেলা দেখা হয় না মাশরাফিদের। এখানে স্কাইস্পোর্টস পে-চ্যানেল, তাই সহজেই হোটেলরুমের এলইডিতে বিশ্বকাপের ম্যাচ দেখা যায় না। তবে আজ মোবাইলের অ্যাপসেই এ ম্যাচটি দেখবেন টাইগারদের অনেকে।

এবং নিঃসন্দেহে সমর্থনটা থাকবে কোহলিদের দিকেই। ‘এখানে আমাদের পছন্দের কিছু নেই। তবে টুর্নামেন্টে আমরা আমাদের স্বার্থ তো দেখব। যারা জিতলে আমাদের সুবিধা, তাদেরই সমর্থন করব’- স্মার্ট উত্তর দিয়েছেন মোসাদ্দেক। শুধু বাংলাদেশই নয়, পাকিস্তানও চাইবে আজ ইংল্যান্ডের বাজে দিন আসুক। আজ ইংল্যান্ড হারলে এবং হাতে থাকা তাদের বাকি ম্যাচটি নিউজিল্যান্ডকে হারালেও তাদের পয়েন্ট দাঁড়াবে ৯। অন্যদিকে বাংলাদেশ যদি দুটো ম্যাচই জিতে যায় তাহলে ১১ পয়েন্ট নিয়ে মাশরাফিরাই সেমিফাইনালে। সহজ এই অঙ্ক কষতে আজ ইংল্যান্ডের হার কামনা করার মধ্যে দোষের কিছু নেই।

এমন একটা জটিল পরিস্থিতির মধ্যেই আজ নিজেদের মাঠে ভারতের মুখোমুখি হচ্ছে ইংল্যান্ড। যে দলটি নিয়ে সপ্তাহখানেক আগেও ব্রিটিশ সাংবাদিকরা আহ্লাদে আটখানা ছিলেন, যারা লিখেছিলেন, ইংল্যান্ডের এই দলটি বলে বলে প্রতি ম্যাচে চারশ’ করবে, যারা এ দলটিকে ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপ ইতিহাসে সর্বকালের সেরা দল বলেছিলেন- তারাই গতকাল ইয়ন মরগানের সংবাদ সম্মেলনে প্রশ্ন করেছিলেন এমন- এটাই কি আপনার অধিনায়কত্ব টিকিয়ে রাখার শেষ ম্যাচ? আপনারা কি ভয় পেয়ে গেছেন? চাপের মুখে আপনারা কি কখনোই খেলতে পারেন না? হারলেই তো বিশ্বকাপ শেষ- তখন দলের কেউ কি অবসর নেবে? এমন ডু অর ডাই ম্যাচের চাপ সামলাতে পারবেন তো? সংবাদ সম্মেলনের সামনে বসা ব্রিটিশ সাংবাদিকদের কাছ থেকে একের পর এক বাউন্সারে নিজেকে কোনোমতো বাঁচানোর চেষ্টা ছিল মরগানের। শেষ পর্যন্ত বলতে বাধ্য হয়েছিলেন- ‘দেখুন, এটা আমার ব্যক্তিগত কোনো সংবাদ সম্মেলন নয়, এখানে আমি নিজের কথা বলতে আসিনি, দলের কথা বলতে এসেছি।’ তাতেও ছাড় নেই মরগানের।

‘দেখুন, আমরা ভারতকে গত বছরই দ্বিপক্ষীয় সিরিজে হারিয়েছি। ভারতকে হারানোর ক্ষমতা আছে আমাদের।’ তার কথা যেন কেউ বিশ্বাসই করতে পারছিল না। এরই মধ্যে আগের দিন জনি বেয়ারস্টো এক কথা বলে বোমা ফাটিয়েছেন। ‘আমরা যে পিচে খেলে অভ্যস্ত, সেটা বিশ্বকাপে পাচ্ছি না। আইসিসি হয়তো ভারতের স্বার্থ দেখেই এজবাস্টনে স্পিন ট্র্যাক বানিয়ে রেখেছে।’ গতকালও এ নিয়ে একগাল কথা শুনতে হলো মরগানের। শেষ পর্যন্ত ওটা বেয়ারস্টোর নিজস্ব মতামত বলে পার পাওয়ার চেষ্টা করেন তিনি।

এই ম্যাচে কে ফেভারিট? দু’সপ্তাহ আগে হলেও উত্তরে ইংল্যান্ড বলে দেওয়া যেত। কিন্তু শ্রীলংকা আর অস্ট্রেলিয়ার কাছে টানা দুটো ধাক্কা খাওয়ার পর শেষ চারে যাওয়ার জন্য এখন গ্যালারিতে সমর্থকদের আসতে বলতে হচ্ছে। ‘সমালোচকরা কে কী বলল তা নিয়ে মাথা ঘামাচ্ছি না। কেননা সেটা তাদের কাজ। আমরা প্রেরণা পেয়ে থাকি সমর্থকদের কাছ থেকে। তারা যদি মাঠে আসে তাহলে দারুণ একটি ম্যাচ দেখতে পাবে। ভারতের সঙ্গে খেলা হলে মাঝে মধ্যে ঘরের মাঠকেও বিদেশ মনে হয়। আশা করছি, কাল অন্তত ইংল্যান্ডের সমর্থক বেশি থাকবে এজবাস্টনে।’ সমর্থকদের খুশির খবর জানালেন এই বলে যে, আজকের ম্যাচে জেসন রয় খেলছেন এবং আর্চার নেটে বোলিং না করলেও খেলবেন। তবে বার্মিংহামের এ মাঠটি ইঙ্গিত দিচ্ছে, এখানে স্পিনাররা ভালো করবেন। সেই হিসেবে আদিল রশিদের সঙ্গে আজ মঈন আলিকেও দেখা যেতে পারে।

ভারতের অবশ্য সমস্যা অন্যখানে। শেখর ধাওয়ান ইনজুরি নিয়ে চলে যাওয়ার পর তাদের টপঅর্ডারে বাঁহাতি ব্যাটসম্যান নেই। প্রেসবক্সের পাশে বসা মুম্বাইয়ের এক সাংবাদিক বলছিলেন যে, আজ হয়তো ঋষভ পান্তকে খেলিয়ে দেবেন কোহলি; যা শুনে আরেক সাংবাদিকের প্রতিবাদ- সেমিতে ওঠার ম্যাচে কোহলি নিশ্চয়ই দল নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষায় যাবেন না। এ মুহূর্তে অপরাজিত থাকা দলটি আজ ইংল্যান্ডকে হারিয়ে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করার লক্ষ্যেই নামবে।

টাইগার সমর্থকরাও হয়তো সেটাই চাইবে। আজ ইংল্যান্ড হেরে গেলে বাংলাদেশের সামনে সমীকরণটা পরিস্কার হয়ে যাবে, পরের দুই ম্যাচে ভারত ও পাকিস্তানকে হারাতে হবে। দুটোর একটি ম্যাচ জিতলেও সেই সম্ভাবনা থাকবে এবং সেটা পাকিস্তানকেই হারাতে হবে। তার আগে আজ অন্তত ইংল্যান্ড হারুক।

আস/এসআইসু

Facebook Comments Box