ভোটে হবেন শীর্ষ দুই নেতা

আলোকিত সকাল ডেস্ক

পাঁচ বছর পর নতুন কমিটি পেতে যাচ্ছে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল। নতুন কমিটির শীর্ষ দুই নেতা নির্বাচিত হবেন গণতান্ত্রিক উপায়ে। আগামী ১৫ জুলাই ১১৭ ইউনিটের ৫৮৫ জন প্রতিনিধি নির্ধারণ করবেন সভাপতি সাধারণ সম্পাদক। সংগঠনটির তফসিল ঘোষণার পরই নড়েচড়ে বসেছেন শীর্ষ পদ-প্রত্যাশীরা। দৌড়ঝাঁপ করছেন বিভিন্ন মহলে। নেতা-কর্মীদের আড্ডা থেকে শুরু করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম সবখানেই চলছে প্রচারণা।

নতুন কমিটিতে নেতা নির্বাচনে ২০০০ সালের পরে এসএসসি/সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে মর্মে শর্তারোপ করায় অপেক্ষাকৃত তরুণরা চলে এসেছেন লাইমলাইটে। এ শর্তে বাদ পড়েছেন সদ্য বিলুপ্ত কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতি, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকসহ অধিকাংশ সদস্য। এ নিয়ে প্রতিনিয়তই চলছে বিক্ষোভ। বাদপড়া নেতারা নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ভাঙচুরও করেছেন। তবে এ বিক্ষোভ পাত্তা না দিয়ে উল্টো ১২ নেতাকে বহিষ্কার করেছে বিএনপি।

ছাত্রদলের শীর্ষ দুই নেতা হওয়ার দৌড়ে রয়েছেন বিভিন্ন ইউনিটের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করা নেতারা। এর মধ্যে সভাপতি পদে এগিয়ে রয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সভাপতি আল মেহেদি তালুকদার, একই ইউনিটের প্রথম সহসভাপতি তানভীর রেজা রুবেল, সদ্য বিলুপ্ত কেন্দ্রীয় কমিটির সহসাধারণ সম্পাদক আসাদুল টিটো, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাফিজুর রহমান হাফিজ, কেন্দ্রীয় কমিটির সহসম্পাদক ফকির আশরাফ লিংকন ও কেন্দ্রীয় সম্পাদক কাজী রওনকুল ইসলাম শ্রাবণ।

অন্যদিকে সাধারণ সম্পাদক পদে আলোচনায় রয়েছেন সংগঠনের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার জ্যেষ্ঠ সহ-সাধারণ সম্পাদক মো. মুতাছিম বিল্লাহ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহ নেওয়াজ, ইকবাল হোসেন শ্যামল, শরীফ মাহমুদ জুয়েল ও তানজিল হাসান। এর বাইরেও বিভিন্ন ইউনিটের নেতারা দেন-দরবার করছেন শীর্ষ মহলে। প্রায় প্রতিদিনই ছোট উপ-গ্রুপে ভাগ হয়ে প্রচারণা চালাচ্ছেন পদপ্রত্যাশীরা।

সংশ্লিষ্ট সূত্র বলছে, ভোটের মাধ্যমে নেতা নির্বাচন হলে কঠিন সমীকরণ হবে। শেষ সময়ে যে কেউ এগিয়ে যেতে পারে দৌড়ে। নেতা নির্বাচনে কাউন্সিলরদের ভাবনায় এলাকা, অভ্যন্তরীণ গ্রুপ ছাড়াও দুঃসময়ের সঙ্গীরা স্থান পাচ্ছেন। খুলনা জেলার এক কাউন্সিলর খোলা কাগজকে বলেন, ‘দীর্ঘদিন পরে নতুন কমিটি হচ্ছে এইটা সুসংবাদ। কাছের অনেকেই আছে ক্যান্ডিডেট, এর মধ্যে বিচার-বিশ্লেষণ করে সমর্থন জানাব। বিগত সময়ে যারা পাশে ছিলেন অবশ্যই তাদের পাশে আমরা তৃণমূলের নেতারা থাকব।’

দীর্ঘদিন ক্ষমতার বাইরে থাকা বিএনপির সহযোগী সংগঠন ছাত্রদলের সর্বশেষ কমিটি ঘোষণা করা হয় ২০১৪ সালের অক্টোবরে। রাজীব আহসান ও আকরামুল হাসানের নেতৃত্বাধীন কমিটির মেয়াদ শেষ হয় ২০১৬ সালের অক্টোবরে। নতুন কমিটি গঠনের লক্ষ্যে গত ৩ জুন ছাত্রদলের মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটি ভেঙে দেয় বিএনপি। কমিটি ভেঙে দেওয়ার পর নতুন কাউন্সিল অনুষ্ঠানে সংগঠনটির সাবেক নেতাদের নিয়ে নির্বাচন পরিচালনা কমিটি, বাছাই কমিটি ও আপিল কমিটি গঠন করেছে দলটি।

১৫ জুলাই নির্বাচনের লক্ষ্যে ২৪ জুন ভোটার তালিকা প্রকাশ, ২৫ জুন ভোটার তালিকার বিষয়ে আপত্তি গ্রহণ ও ২৬ জুন চূড়ান্ত ভোটার তালিকা প্রকাশ করা হয়। ২৭ ও ২৮ জুন প্রার্থীদের জন্য মনোনয়নপত্র বিতরণ ও ২৯ ও ৩০ জুন প্রার্থীদের মনোনয়ন গ্রহণ করা হবে। ১, ২ ও ৩ জুলাই প্রার্থিতা যাচাই-বাছাই, ৪ জুলাই প্রার্থীদের খসড়া তালিকা প্রকাশ, ৫ জুলাই প্রার্থীদের সম্পর্কে আপত্তি গ্রহণ, ৬ জুলাই প্রার্থীদের সম্পর্কে আপত্তি নিষ্পত্তি ও ৭ জুলাই প্রার্থীদের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করা হবে। ১৫ জুলাই সকাল ৯টা থেকে বিরতিহীনভাবে বেলা ৩টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ করা হবে।

আস/এসআইসু

Facebook Comments Box