গরমে পুড়ছে ইউরোপ

আলোকিত সকাল ডেস্ক

রীতিমতো গরমে পুড়ছে গোটা ইউরোপ। এই উপমহাদেশের কয়েকটি দেশের ওপর দিয়ে বয়ে যাচ্ছে তীব্র তাপপ্রবাহ। পরিস্থিতি বিবেচনায় ফ্রান্স ও স্পেনে জারি করা হয়েছে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ‘অরেঞ্জ এলার্ট’। শিগগিরই অন্যান্য দেশেও একই এলার্ট জারি হবে। বেশি তাপমাত্রা দেখা দিলে সর্বোচ্চ সতর্কতা ‘রেড’ জারি করা হয়ে থাকে। মহাদেশটির অনেক দেশেই জুনের তাপমাত্রায় নতুন রেকর্ড সৃষ্টি হয়েছে। ইতালি, জার্মানি, পোল্যান্ড ও চেক রিপাবলিকের তাপমাত্রা প্রতিদিনই বৃদ্ধি পাচ্ছে।

সুইজারল্যান্ড ও ফ্রান্সে গতকাল তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রী সেলসিয়াস পর্যন্ত ওঠে। আবহাওয়াবিদরা বলছেন, উত্তর আফ্রিকা অঞ্চল থেকে প্রবাহিত হওয়া ব্যতিক্রমী গরম বাতাসের কারণে ইউরোপে দাবদাহ শুরু হয়েছে।

ফ্রান্সের আবহাওয়া কর্মকর্তারা স্বাস্থ্য ঝুঁকির বিষয়ে চরম সতর্কতা জারি করেছেন। শিশু ও প্রবীণদের বিশেষ প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাইরে বের না হওয়ার পরামর্শ দেয়া হয়েছে। দাবদাহ থেকে বাঁচতে কিভাবে শীতল থাকা যায়, সে বিষয়ে নানা ধরনের পরামর্শ দিয়েছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ। বুধবার জার্মানির ব্রান্ডেনবার্গের কোসহেনে তাপমাত্রা ৩৮.৬ ডিগ্রী সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়।

যা দেশটির জুনের তাপমাত্রার নতুন রেকর্ড। পোল্যান্ডের র্যাডজিনে ৩৮ দশমিক দুই ডিগ্রী সেলসিয়াস এবং চেক রিপাবলিকের ডোক-সানিতে ৩৮ দশমিক নয় ডিগ্রী সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়। ফ্রান্স ও সুইজারল্যান্ডের কিছু কিছু অঞ্চলে স্থানীয়ভাবে তাপমাত্রার সর্বকালের নতুন রেকর্ড সৃষ্টি হয়েছে। ফ্রান্স ২০০৩ সালে আরেকটি তাপদাহে বিপর্যস্ত হয়েছিল । ওই বছর ১৫ হাজার লোকের মৃত্যুর জন্য ওই তাপদাহকে দায়ী করা হয়েছিল। বিবিসি।

আস/এসআইসু

Facebook Comments Box