এবার ভাইরাল নয়ন বন্ডের সঙ্গে মিন্নির বিয়ের ফেসবুক স্টাটাস!

আলোকিত সকাল ডেস্ক

আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নির ফেসবুকে দেওয়া দুটি স্ট্যাটাস নিয়ে এখন সারাদেশে আলোচনা চলছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের পৃথক দুটি আইডি থেকে দেওয়া স্ট্যাটাস দুটিতে তার বিয়ে করার ঘোষণা রয়েছে। যদিও এ ঘোষণার সঙ্গে নৃশংস হত্যার ঘটনার কোনো সংশ্লিষ্টতা নেই। নৃশংস হত্যার ভিডিও ফুটেজ সারাদেশের মানুষকে শিউরে তুলেছে।

এরপরও এ দুটি স্ট্যাটাস পর্যালোচনা করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একাধিক ব্যক্তি বলেছেন, রিফাতের ঘাতক নয়ন বন্ডের সঙ্গে পূর্বে মিন্নির বৈবাহিক সম্পর্ক ছিল। এ কারণে রিফাত শরীফকে হামলার সময় নয়ন বন্ড তার সাবেক স্ত্রী মিন্নির ওপর হামলা চালায়নি।

এ্যাস মিন্নি নামে ফেসবুক আইডি থেকে ২০১৮ সালের ১৮ অক্টোবর একটি স্ট্যাটাস দেওয়া হয়েছে। সেখানে মিন্নি ঘাতক নয়ন বন্ডকে বিয়ে করার ঘোষণা দিয়ে লিখেছেন, ‘ম্যারিড নয়ন বন্ড’। অপরদিকে, নিরজনা মিন্নি নামে ফেসবুক আইডি থেকে চলতি বছরের ১৬ এপ্রিল উল্লেখ করা হয়েছে, ‘ ম্যারিড রিফাত শরীফ’।

এদিকে, আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নির সঙ্গে প্রধান অভিযুক্ত সাব্বির আহমেদ নয়ন ওরফে নয়ন বন্ডের বিয়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নিকাহ রেজিস্ট্রার কাজী মো. আনিসুর রহমান ভূঁইয়া। তিনি বরগুনা পৌরসভার ৪, ৫ ও ৬নং ওয়ার্ডের নিকাহ রেজিস্ট্রার। তাদের বিয়ের প্রথম সাক্ষী রিফাত শরীফ হত্যাকাণ্ডের দ্বিতীয় আসামি রাকিবুল হাসান রিফাত ওরফে রিফাত ফরাজী। বিয়ের দেনমোহর হয়েছিল পাঁচ লাখ টাকা।

রিফাত হত্যাকাণ্ডের পর মিন্নি বলেছিলেন, আমার বিয়ে হয়েছে একমাত্র রিফাত শরীফের সঙ্গে। এছাড়া আর কখনো কারও সঙ্গে বিয়ে হয়নি। যেহেতু বিয়েই হয়নি, ডিভোর্স হওয়ার কোনো প্রশ্নই আসে না। রিফাতই আমার স্বামী এবং এটাই সত্য। আমি এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চাই। আমি প্রধানমন্ত্রীর কাছে একটাই দাবি করি, যারা আমার স্বামীকে হত্যা করেছে আমি তাদের ফাঁসি চাই।

অপরদিকে আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নি বলেছেন, ফেসবুকে আমাকে নিয়ে বিভিন্ন লেখালেখি হচ্ছে বলে আমি শুনেছি। এইসব যারা করছে, তারা সন্ত্রাসীদের বাঁচানোর জন্য আমাকে নিয়ে আজেবাজে মন্তব্য করছে। এরাও খুনিদের সঙ্গে জড়িত। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ও এদেশের মানুষের কাছে আমার একটাই দাবি, যারা এমন আজেবাজে কথা বলছে তাদের যেন শাস্তি দেওয়া হয়।’

শনিবার (২৯ জুন) রাত ৮টার দিকে বরগুনা পৌর শহরের মাইঠা এলাকায় নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি।

আস/এসআইসু

Facebook Comments Box