আলান-ভ্যালেরিয়াদের ছবি ‍‍`ঘৃণা` করেন ডোনাল্ড ট্রাম্প!

আলোকিত সকাল ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্র ও মেক্সিকো সীমান্তবর্তী রিও গ্র্যান্ডের নদী তীরে ভেসে উঠা নিহত মেক্সিকান অভিবাসী বাবা ও তার মেয়ের মর্মস্পর্শী ছবিকে ঘৃণা করেন বলে জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ছবিটি বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত হলে তা ট্রাম্প প্রশাসনের বিতর্কিত ‘অভিবাসন নীতি’র ব্যাপারে বিশ্বজুড়ে ঝড় তোলে, শুরু হয় আলোচনা ও বিতর্ক।

বৃহস্পতিবার (২৭ জুন) আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদের ভিত্তিতে জানা যায়, বুধবার (২৬ জুন) এ বিষয়ে নিজের প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করতে গিয়ে ট্রাম্প বলেছেন, ‘আমি এটাকে ঘৃণা করি’। স্কাই নিউজ/এএফপি

জানা যায়, বুধবার আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত ছবিটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রিও গ্র্যান্ডে এলাকার। এই অংশে মেক্সিকোর সঙ্গে সীমানা রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের। মেক্সিকোর এক সংবাদপত্রের প্রকাশিত খবরের বরাত দিয়ে বার্তাসংস্থা রয়টার্স জানায়, মৃত ব্যক্তির বাড়ি মেক্সিকোর এল সালভাদরে। নাম অস্কার অ্যালবার্তো মার্টিনেজ রমিরেজ ও সাথের ছোট্ট প্রাণহীন দেহটি তার মেয়ে ভ্যালেরিয়ার।
ভূমধ্যসাগরের তীরে ভেসে আসা সেই সিরিয় শিশু আলানের লাশ- ফাইল ছবি

মেক্সিকো সীমান্ত দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের চেষ্টা করা ২৩ মাস বয়সী ভ্যালেরিয়া নামের ওই শিশুকে বলা হচ্ছে ‘আমেরিকান আলান’। ২০১৫ সালের সেপ্টেম্বর মাসে ভূমধ্যসাগরের তীরে ৩ বছর বয়সী সিরিয়ান উদ্বাস্তু শিশু আলানের মরদেহের ছবিটি গটা বিশ্বকে স্তব্ধ করে দিয়েছিলো। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বাবার সাথে পানিতে মুখ থুবড়ে পড়ে থাকা ভ্যালেরিয়ার লাশের ভাইরাল হওয়া ছবিকে ঘিরে ক্ষোভের লক্ষ্যবস্তু হচ্ছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। মেক্সিকোর অভিবাসন প্রত্যাশীদের নিয়ে তার নৃশংস নীতির কথাই ঘুরেফিরে আসছে বারবার। মর্মস্পর্শী এই ছবি দেখে অনেকেই ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন ট্রাম্প আর তার নীতির বিরুদ্ধে।
মায়ের কোলে শিশু ভ্যালেরিয়া- ছবি স্কাই নিউজ

এদিকে অভিবাসী মৃত্যুর ব্যাপারে নিজের প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে ট্রাম্প এমন মৃত্যুর জন্য বিরোধী ডেমোক্র্যাটদের দায়ী করছেন। তার দাবি, সীমান্ত দেয়াল নির্মাণ করতে তারা রাজি না হওয়ার কারণেই অবৈধ অভিবাসীরা নানাভাবে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের চেষতা চালাতে গিয়ে এমন মৃত্যুর মুখে পতিত হচ্ছে।

এর আগেও অভিবাসী প্রত্যাশীদের প্রতি অমানবিক আচরণের জন্য সমালোচিত হয়েছিলেন ট্রাম্প। অশালীন ভাষায় অভিবাসী প্রত্যাশীদের আক্রমণ করেছেন তিনি। মেক্সিকো-যুক্তরাষ্ট্র সীমান্ত দিয়ে প্রবেশ করতে চাওয়া মানুষদের তিনি কখনো ‘পশু’, ‘ঠান্ডা মাথার অপরাধী’, ‘খারাপ মানুষ’ ইত্যাদি আখ্যা দিয়ে এসেছেন অতীতে। মুখে আন্তর্জাতিক অভিবাসন নীতির প্রতি সমর্থন জানানো ট্রাম্প প্রশাসনের এমন আচরণকে মানবতার সঙ্গে ‘ভয়াবহ প্রহসন’ হিসেবে আখ্যা দিয়েছে বিশ্বের অনেকেই।

আলোকিত সকাল/এসআইসু

Facebook Comments Box