৫৮৫ দিন পর ধরা দিল তামিমের সেঞ্চুরি!

83

সর্বশেষ ২০১৮ সালের জুলাই মাসে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তামিমের ব্যাট থেকে সেঞ্চুরির দেখা পেয়েছিল বাংলাদেশ। তারপর থেকে একে একে ৫৮৫ দিন নিজেকে খুঁজে ফিরেছেন বাংলাদেশের এই ড্যাশিং ওপেনার। অবশেষে ধরা দিয়েছে এতদিনের সেই অধরা শতক। আজ মঙ্গলবার (৩ মার্চ) সিলেটে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে দুর্দান্ত এক শতক হাঁকিয়েছেন তামিম। তিন ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন টাইগার অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। ব্যাটিংয়ে নেমে ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমণাত্মকভাবে ব্যাট করতে থাকেন দেশসেরা এই ওপেনার।

দীর্ঘদিন রান করতে না পারায় বিগত কয়েকমাস থেকে বেশ সমালোচনার শিকার হয়েছেন তামিম। তাই এদিন যেন বেশ ফুরফুরে মেজাজে শুরু করেন নিজের ইনিংস। প্রথম ছয় ওভারে বাংলাদেশ সংগ্রহ ৩৪ রান; যার মধ্যে তামিম একা করেন ২৪ রান। তামিমকে ভালো সঙ্গ দিচ্ছিলেন আরেক ওপেনার লিটন দাস। কিন্তু দুর্ভাগ্য লিটনের। গত ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান এই ম্যাচে ফিরেছেন মাত্র ৯ রান করে। তামিম ইকবালের খেলা শর্ট বোলার কার্ল মুম্বার হাতে লেগে স্টাম্পে লাগে। দাগের বাইরে থাকায় রানআউট হয়ে সাজঘরে ফিরতে হয়েছে লিটনকে। লিটনের পর তামিমকে সঙ্গ দিতে আসেন তরুণ ব্যাটসম্যান নাজমুল হোসেন শান্ত। কিন্তু লিটনের পথেই হেঁটেছেন শান্ত। আবারো সেই রান আউটের শিকার হয়ে ৬ রান নিয়ে মাঠ ছাড়েন তিনি। অন্যদিকে ব্যাটিংয়ে ঝড় তুলেন তামিম। তুলে নিয়েছেন ১০ চারে দুর্দান্ত এক অর্ধশতক।

শান্ত ফিরে গেলে তামিমকে সঙ্গ দিতে মাঠে নামেন দলের উইকেটকিপার মুশফিকুর রাহিম। মুশফিকের সাথে এক দারুণ জুটি গড়ে নিজের ইনিংসকে বড় করতে থাকেন তামিম। তামিমের সাথে জুটি গড়ে নিজের ৩৭ তম অর্ধশতক তুলে নেন মুশফিক। ৫৫ রান করে মুশফিক সাজঘরে ফিরলেও নিজের রানের চাঁকা থামতে দেননি তামিম। মাহমুদুল্লাহকে সঙ্গী করে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে ৭০০০ (সাত হাজার) রানের মাইলফলক পার করেন তিনি। এরপর ঠাণ্ডা মাথায় নিজের ইনিংসকে নিয়ে যান তিন অঙ্কের ঘরে। ক্যারিয়ারে ১২ তম সেঞ্চুরির দেখা পান তামিম। এতে করে দীর্ঘদিন পর স্ট্রাইক রেট ঠিক রেখে ছন্দে ফিরতে দেখা গেল তামিমকে। ১২ তম সেঞ্চুরির দেখা পেতে তামিম খেলেছেন মোট ১০৬ বল। তার সাবলীল ব্যাটিংয়ে ভর করেই বড় সংগ্রহের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে টাইগাররা। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত বাংলাদেশের সংগ্রহ ৩৭ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ১৯৯ রান। তামিম ১০০ ও মাহমুদুল্লাহ ২৫ রানে অপরাজিত আছেন।

বাংলাদেশ একাদশ: তামিম ইকবাল, লিটন দাস, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুশফিকুর রহীম, মোহাম্মদ মিঠুন, মাহমুদউল্লাহ, শফিউল ইসলাম, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, মাশরাফি বিন মর্তুজা (অধিনায়ক), আল আমীন।

Facebook Comments