৪৮ বছরেও মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি পাননি দাগনভূঞা সিন্দুরপুরের মো:বজলুর রহমান

মোঃস্বপন মজুমদার

মোঃ বজলুর রহমান ওরফে বজলের রহমান পিতাঃমৃত নুরের জ্জামান গ্রামঃ চন্দ্রপুর পোঃ সিন্দুরপুর থানাঃ দাগনভূঞাঁ জেলাঃ ফেনী, তিনি একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা। তিনি ১৯৭১সালে বঙ্গবন্ধুর ডাকে সাড়া দিয়ে স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশ নেওয়ার জন্য ভারতের চোত্তাখোলায় প্রশিক্ষণ/ট্রেনিং নেন পরে ফেনীর লক্ষীয়ারা ক্যাম্পে থেকে পাকিস্তানিদের সাথে দেশ রক্ষার্থে নিজের জীবন বাজিঁ রেখে যুদ্ধো করেন।

তখন যুদ্ধোকালীন কমান্ডার ছিলেন ২নংরাজাপুর ইউনিয়নের মুক্তিযোদ্ধা আবুল হোসেন সবুজ,(তিনি বর্তমানে জীবীত,)এর পর তিনি/বজলের রহমান নোয়াখালী বি-জোন কমান্ডার “”রুহুল আমিন (ভূঞা)”” সাহেবের অধীনে সেনবাগের কেশার পাড়া প্রাইমারী স্কুলে সেনবাগের বর্তমান কমান্ডার “”এস এম আবদুল ওহাব”” সহ(এখনো জীবীত আছেন) থ্রি নর্থ থ্রি এবং গেনেট প্রশিক্ষণ নিয়ে নোয়াখালীর বিভিন্ন জায়গায় নিজের জীবন বাজিঁ রেখে রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের মাধ্যমে এদেশ স্বাধীন করেছেন। অথচো স্বাধীনতার ৪৮বছর চলে প্রায় ৫০বছর হতে চললো।

এখনো তিনি মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি পাচ্ছেনা। সে মুক্তিযোদ্ধা এইটা এলাকার সবাই জানে, এ বিষয়ে মোঃ বজলুর রহমানের ছেলে বলেন আমার বাবা গ্রাম অঞ্চলের মানুষ সহজ-সরল ব্যক্তি, তাই মন্ত্রনালয় সম্পর্কে তেমন কিছু জানিনা এবং চিনিওনা,এজন্যে আমার বাবার সূর্যো সন্তানের পরিচয়টাও আনতে পারছিনা,সরকারও করছেনা কোন মূল্যয়ন,ট্রেনিং শেষে “”কর্নেল ওসমান গণির”” সার্টিফিকেট পেয়েছেন যা যুদ্ধোশেষে বাড়িতে রেখে পরিবার চালানোর জন্য বিদেশে চলেযান,দীর্ঘদিন পর বিদেশ থেকে দেশে এসে অনেক খোজাখুজি করার পরও কর্ণেল ওসমান গণির সার্টিফিকেট পায়নি?

প্রমাণ স্বরূপ আছে “”মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক ২০০১সালে প্রতি স্বাক্ষরিত””বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিল সার্টিফিকেট, নোয়াখালী বি-জোন কমান্ডার “”রুহুল আমিন ভূঞা””এর প্রত্যয়ন পত্র,সেনবাগ উপজেলা কমান্ডার “”এস এম আবদুল ওহাব””এর প্রত্যয়ন পত্র,যুদ্ধোকালীন কমান্ডার “”আবুল হোসেন সবুজ”” এর প্রত্যয়ন পত্র, ০১নং সিন্দুরপুর ইউনিয়ন সাবেক ও বর্তমান চেয়ারম্যানের প্রত্যয়ন পত্র,১নং সিন্দুরপুর ইউনিয়ন কমান্ডার ও ডিপুটি কমান্ডার””ওবায়দুল হক ও আঃ মালেক””এর প্রত্যয়ন পত্র,মৃত্যুর আগে আমার বাবা তার পূর্ণ স্বীকৃতি চান যা তিনি প্রাপ্য,যেন মৃত্যুর পর মুক্তিযোদ্ধার সম্মানটুকু পান।সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে দায়িত্ব্য নিয়ে আমার বাবার বিষয়টা আমাদের এলাকায় তদন্ত করে দেখেন আপনাদের মাধ্যমে তার যোগ্য মর্যাদা দান যদি সরকার করে তাহলে সরকারের প্রতি আমি,আমার বাবা সহ এলাকার সবাই চির কৃতজ্ঞ থাকবো।

আস/এসআইসু

Facebook Comments Box