২০২২ সালের মধ্যে পুরান ঢাকার সব কেমিক্যাল কারখানা সরিয়ে নেয়া হবে

আলোকিত সকাল ডেস্ক

আগামী ২০২২ সালের মধ্যে রাজধানীর পুরান ঢাকার সব কেমিক্যাল গুদাম সরিয়ে নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান।

আজ বুধবার (২৬ জুন) দুপুরে সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে পুরান ঢাকার চুড়িহাট্টায় আগুনের ঘটনার তদন্ত রিপোর্ট প্রকাশ উপলক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা জানান।

ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী বলেন, পুরান ঢাকার সবগুলো কেমিক্যাল কারখানাই এখন ঝুঁকিপূর্ণ। আগামী ২০২২ সালের জুন মাস নাগাদ এসব গুদাম সরিয়ে নেয়া হবে। এ সময়ের মধ্যে মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখানে ২ হাজার ১৫৪টি প্লট বরাদ্দ নিশ্চিত করা হবে।

তিনি বলেন, কারখানা মালিকরা সিরাজদিখানে ৩১০ একর জমির উপর নির্মিত কারখানাগুলো সব কেমিক্যাল স্থানান্তর করবে। এর ফলে পুরান ঢাকার সবগুলো কারখানা স্থানান্তর নিশ্চিত করা যাবে।

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, দেশের সব মানুষের দাবি ছিল এই কেমিক্যাল কারখানাগুলো ঢাকার আবাসিক এলাকা থেকে বাইরে কোথাও সরিয়ে নিতে হবে। আজকের সভায় আমাদের শিল্পমন্ত্রণালয়ের প্রতিবেদন থেকে আমরা জানতে পেরেছি, সিরাজদিখান উপজেলায় ৩১০ একর জমি বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। সেখানে ১ হাজার ৭০০ কোটি টাকা ব্যায়ে ২ হাজার ১৫৪টি প্লট বরাদ্দ দেয়া হবে। এর আগে, ত্রাণ মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত সভায় ২২টি মন্ত্রণালয় থেকে প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমাদের সরকারের বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ ছিল, দুর্যোগ এলে আমাদের তৎপরতা বাড়ে। কিন্তু এ অপবাদ ঘোচাতে আমরা আজ আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা করেছি। আমরা এ মিটিং এ বিগত সময়ে ঘটে যাওয়া দুর্যোগ বিষয়ে রিভিউ করেছি।

তিনি বলেন, ঢাকার চুড়িহাট্টায় অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় যে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছিল সেই প্রতিবেদন আমরা পেয়েছি। সেই প্রতিবেদনে আমরা স্বল্প মেয়াদী ৫টি সুপারিশ এবং দীর্ঘমেয়াদী ২৬টি সুপারিশ এসেছে। সেই সুপারিশগুলো নিয়ে আমরা আলোচনা করেছি।

আস/এসআইসু

Facebook Comments