স্কুলছাত্রীকে লাগাতার ধর্ষণ

আলোকিত সকাল ডেস্ক

পিরোজপুরের নাজিরপুর একবছর ধরে স্কুলছাত্রীকে লাগাতার ধর্ষণ ও ভিডিও ধারন করা হয়েছে। বিয়ের কথা বলে ধর্ষণ করার অভিযোগে জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য আলমগীর সিকদার লোটনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা হয়েছে। মৌলভীবাজারে ৫ম ও ১ম শ্রেণির শিক্ষার্থী ধর্ষণের শিকারের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এছাড়া রূপগঞ্জে অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থীকে ও উলিপুরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। আশুলিয়ায় শিশু ধর্ষণ মামলার পলাতক আসামিসহ বিভিন্ন স্থানে আটক ৩ ।

পিরোজপুর : পিরোজপুরের নাজিরপুর উপজেলার শেখমাটিয়া ইউনিয়নের এক স্কুলছাত্রীকে ১বছর ধরে লাগাতার ধর্ষণ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। আবার সেই ধর্ষণের ভিডিও ধারন ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়াও হয়েছে। ছাত্রীর পরিবারের কাছ থেকে জানা যায়, মেয়েটি পঞ্চম শ্রেণিতে পড়া অবস্থায় এক বছর আগে একই গ্রামের দশম শ্রেণির ছাত্র রিফাত আল-মামুন মেয়েটিকে ধর্ষণ করে তার ভিডিও চিত্র ধারণ করে। এর পর থেকে ওই ভিডিও প্রচারের ভয় দেখিয়ে দীর্ঘ এক বছর ধরে ধর্ষণ করে আসছিলো। স¤প্রতি ওই ধর্ষক ও তার বন্ধু বান্ধব সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে মেয়েটির ভিডিও চিত্র প্রকাশ করে দেয়। এতে লজ্জায় মেয়েটি আত্মহত্যার চেষ্টা করে। নির্যাতিত স্কুল ছাত্রী জানান, এক বছর আগে রঘুনাথপুর গ্রামের ধর্ষক রিফাত আল মামুন তাকে পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ার সময় জোড় করে ধর্ষণ করে। সেই দৃশ্য মোবাইল ফোনে ভিডিও করে রাখে। এর পরে সেই ভিডিও প্রচারের ভয় দেখিয়ে গত এক বছরে বহুবার তাকে ধর্ষণ করে মামুন। গত রমজানে এ ভিডিও ছড়িয়ে পরে। নাজিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মনিরুল ইসলাম মুনির জানান, ধর্ষণের ঘটনায় আইসিটি ও ধর্ষণের পৃথক দুইটি মামলা নেয়া হয়েছে। আসামি রিফাতকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

ঢাকা : বিয়ের কথা বলে ধর্ষণ করার অভিযোগে জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য আলমগীর সিকদার লোটনের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা হয়েছে। ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের-১ এ এক লেখিকা বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন। আদালতের বিচারক আবু নাসের মো. জাহাঙ্গীর আলম বাদিনীর জবানবন্দি গ্রহণ করে মামলাটি বিচার বিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ দেন। এ মামলার পরবর্তী তারিখ ২৭ জুলাই।

মামলার অভিযোগে বাদিনী উল্লেখ্য করেন,‘সিকদার অ্যান্ড পাবলিকেশন’ ও ‘আকাশ পাবলিকেশন’র মালিক আসামি আলমগীর সিকদার লোটন। অন্যদিকে বাদী একজন লেখিকা হওয়ায় আসামির সঙ্গে পরিচয় হয়। বাদী ‘সংগঠক ও সংগঠন’ রাজনৈতিক বইটি লিখতে আসামি লোটনের সাথে সহকারী লেখিকা হিসেবে কাজ করেন।

পরবর্তী সময়ে আসামির প্রতিষ্ঠান ‘আকাশ পাবলিকেশন’ থেকে প্রকাশিত ‘সময়ের আয়নায় পল্লীবন্ধু’ ছবি অ্যালবামের নির্দেশনা ও অঙ্গসজ্জা হিসেবেও বাদী কাজ করেন। সেই সময় ওই কাজের জন্য বাদী আসামির সাথে দেখা করতেন। তখন আসামি বাদীকে পেলেই বিভিন্ন ইভটিজিংমূলক কথাবার্তা বলতেন। আসামি বাবার বয়সী ভেবে বাদী বিষয়টি এড়িয়ে যেতেন। এছাড়া আসামি বিভিন্ন সময় ফোনে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ম্যাসেঞ্জারে বাদীর কাছে নোংরা ছবি পাঠাতো এবং ভিডিও কলে নোংরা প্রস্তাব দিতো। বাদী কঠোরভাবে প্রতিবাদ করতে পারতেন না, কারণ তাকে কাজের জন্য আসামির কাছে যেতে হতো।

চলতি বছরের ১ জানুয়ারি আসামি লোটনের জন্মদিন হওয়ায় তার অনুরোধে তিনি রাজধানীর কোতোয়ালি থানাধীন বিউটি বোডিংয়ে আসেন। সেখানে জন্মদিনের কেক কাটার পর আসামি বাদীকে বাসায় পৌঁছে দেয়ার কথা বলে গাড়িতে তোলেন। পথে ড্রাইভার ও তার সহযোগীদের গাড়ি থেকে নামিয়ে দিয়ে ঘুরতে ঘুরতে রাজধানীর মোহাম্মাদপুর এলাকার একটি নিরিবিলি স্থানে গাড়ি থামিয়ে রাত ৯টার দিকে গাড়িতেই বাদীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন এবং সে সময় মোবাইল ফোনে কিছু নোংরা ছবি ও ভিডিও ধারণ করেন।

এরপর বাসায় পৌঁছে দেয়ার সময় হুমকি দেন, বিষয়টি কাউকে জানালে ছবি ও ভিডিও ফেসবুকে ছেড়ে দেবেন। আসামির কাছে নোংরা ছবি ও ভিডিও থাকায় সে বাদীকে ব্ল্যাকমেইল করে। এরপর বিভিন্ন সময় আসামির পাবলিকেশন ও বিউটি বোডিংয়ে নিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করেন। সর্বশেষ গত ৩০ জুন আসামি বাদীকে বিয়ে করবে বলে ডেকে এনে বিউটি বোডিংয়ের দোতলার একটি কক্ষে ধর্ষণ করেন।

মৌলভীবাজার : মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার পৃথিমপাশা ও সদর ইউনিয়নে ৫ম শ্রেণি ও ১ম শ্রেণির শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। স্থানীয়ভাবে দুটি ধর্ষণের ঘটনা আপসের নামে ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা চলে। এ বিষয়ে কুলাউড়া থানায় মামলা হয়েছে।
কুলাউড়া থানায় দায়ের করা অভিযোগ থেকে জানা যায়, উপজেলার বাড়ি ফেরার পথে পানির পিপাসা লাগলে গণকিয়া গ্রামের হারিছ আলীর বাড়ি যান পঞ্চম শ্রেণির স্কুলছাত্রী । এ সময় হারিছ আলীর ছেলের বউ সুলতানা বেগম পানি দিয়ে বাড়ির দক্ষিণ পাশে পুকুরে চলে যান। সেই সুযোগে হারিছ আলীর ছেলে সিএনজি অটোরিকশাচালক আহাদ মিয়া (২৩) স্কুলছাত্রীকে বাড়ির কক্ষে নিয়ে ধর্ষণ করে। এদিকে উপজেলার কুলাউড়া সদর ইউনিয়নের গাজীপুর চা বাগান এলাকায় প্রথম শ্রেণির ৬ বছর বয়সী এক স্কুলছাত্রীকে গত ১২ জুলাই শুক্রবার দুপুরে ধর্ষণ করে খোকন রাজভর (৩২)। ওই স্কুলছাত্রীকে বাসায় একা পেয়ে ধর্ষণ করে। বিষয়টি জানাজানি হলে বাগানের কিছু ব্যক্তি আপস নিষ্পত্তির নামে ঘটনাটি ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা চালায়। কুলাউড়া থানার অফিসার ইনচার্জ ইয়ারদৌস হাসান জাগো নিউজকে জানান, ৫ম শ্রেণি ছাত্রী ধর্ষণ এবং ১ম শ্রেণির শিশু ধর্ষণের চেষ্টার ঘটনায় মামলা হয়েছে।

উলিপুর (কুড়িগ্রাম) : কুড়িগ্রামের উলিপুরে এক বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী কিশোরীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। ধর্ষণের ঘটনায় ওই কিশোরী প্রায় ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছে। বিষয়টি নিয়ে এলাকায় একাধিকবার সালিশ বৈঠক হলেও সমাধান না হওয়ায় কিশোরীর পিতা বাদী হয়ে গতকাল থানায় মামলা দায়ের করেছেন। এ ঘটনায় পুলিশ ধর্ষকের পিতা ও বড় ভাইকে আটক করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে সাদুল্যা চাচিয়ারপাড় গ্রামে।

কিশোরীর পরিবার সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার তবকপুর ইউনিয়নের সাদুল্যা চাচিয়ারপাড় গ্রামের মোনাল মিয়া ওরফে মনার ছেলে হযরত আলী ওই কিশোরীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে বিভিন্ন সময় ধর্ষণ করে আসছিল। ফলে ওই কিশোরী ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। এ ঘটনা জানাজানি হলে বিষয়টি আপস-মিমাংসার জন্য গ্রামে একাধিক সালিশ বৈঠক বসে। সেখানে সমাধান না হওয়ায় ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ওয়াদুদ হোসেন মুকুল বিষয়টি দুই পরিবারকে নিয়ে মিটিং এ বসলে হযরত আলী ওই বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণের কথা স্বীকার করে।

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) : নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে স্বপন মিয়া (৩০) নামে এক লম্পট বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে অষ্টম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল মঙ্গলবার সকালে শিক্ষার্থীর বাবা বাদী হয়ে রূপগঞ্জ থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। এর আগে, উপজেলার কাঞ্চন পৌরসভার কালাদী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ধর্ষক স্বপন মিয়া উপজেলার পশ্চিম কালাদী এলাকা হারুন মিয়ার ছেলে।

ধর্ষিতার বাবা জানান, স্বপন মিয়া তার মেয়েকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে উপজেলার কালাদী এলাকায় একটি ঘরে নিয়ে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে। স্বপন মিয়া ধর্ষণের ঘটনা কাউকে জানালে ওই শিক্ষার্থীকে হত্যা করবে বলে হুমকি ধামকি প্রদান করেন। গত ৫ জুলাই ওই শিক্ষার্থী অসুস্থ্য হয়ে পড়লে পরিবারের লোকজন তাকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করান। পরে কর্তব্যরত চিকিৎসক জানায়, ওই শিক্ষার্থী অন্তঃসত্ত্বা। পরে লম্পট স্বপন ও তার মা জরিনা আক্তার, বাবা হারুন মিয়া ওই শিক্ষার্থীকে তরল পানীয় পান করিয়ে গর্ভের সন্তান নষ্ট করে ফেলে।
সাভার : সাভারের আশুলিয়ায় ১১ বছরের শিশুকে ধর্ষণের ঘটনায় দায়েরকৃত মামলার আসামি লাল চাঁনকে (২৫) ঘটনার প্রায় দুই মাস পর গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঘটনার পর থেকে লাল চাঁন পলাতক ছিলেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। গত সোমবার সন্ধ্যায় আশুলিয়ার কলতাস‚তি এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। লাল চাঁন টাঙ্গাইল জেলার মধুপুর থানার ধরাতি তান্তাহার গ্রামের আবু বক্করের ছেলে। সে আশুলিয়ার জিরানী পুকুরপাড় এলাকায় পরিবার নিয়ে থাকত।

আস/এসআইসু

Facebook Comments