সাভারে তিন লক্ষটাকার চাঁদাবাজীর অভিযোগে মাদক ব্যবসায়ী সাংবাদিক রুবেলসহ তিনজন গ্রেফতার

আলোকিত সকাল ডেস্ক

সাভারে তিন লক্ষটাকার চাঁদাবাজী করতে গিয়ে পুলিশের হাতে ধরা পড়েছে শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ি আব্দুস সালাম রুবেল (৪৫)। মঙ্গলবার দুপুরে সাভারের রেডিও কলোনী এলাকা থেকে চাঁদাবাজী করতে গেলে গ্রেফতার করা হয় তাকে। এসময় তার সাথে থাকা দুই সহযোগি ইসমাইল হোসেন, সাজ্জাদ আরিফকে গ্রেফতার করা হয়।
জানা গেছে, রুবেল সাভার পৌরসভার বিনোদবাইদ এলাকার মৃত আব্দুল লতিফের ছেলে। আপেল মাহমুদ নামের এক পরিবহন ব্যবসায়ির কাছে তিন লাখ টাকা চাঁদাবাজীর সময় হাতে নাতে গ্রেফতার করা হয় তাকে।

মামলার বাদি আপেল মাহমুদ জানান, আব্দুস সালাম রুবেল ছিলেন যুবদলের নেতা । রাজনৈতিক পট পরিবর্তনের পর রানা প্লাজা সংলগ্ন আর.এস টাওয়ারের সিকিউরিটি গার্ডের চাকুরী হিসেবে যোগ দেন । রুবেল দৈনিক প্রথম আলো পত্রিকার সাভারের নিজস্ব প্রতিবেদক অরূপ রায়ের সহকারী বা সোর্স হিসেবে আত্ম প্রকাশ করেন। পরে অরূপ রায়ের পৃষ্ঠপোষকতায় রুবেল নিজেই একটি অনলাইন পত্রিকার সাংবাদিক পরিচয়ে শুরু করে প্রতারণা ও চাঁদাবাজী।

যুবলীগ নেতা আবু সাঈদ জানান,আব্দুস সালাম রুবেল এক নারীকে ব্যবহার করে আমার সংসারে আগুন দিয়েছে। আমার কাছে মোটা অংকের অর্থ না পেয়ে সে এক নারীকে ব্যবহার করে ফেসবুকে আমার বিরুদ্ধে কুৎসা রটনা করে মোটা অংকের চাঁদা দাবী করে।তার বিরুদ্ধে কেউ থানায় অভিযোগ করলে সংশ্লিষ্ট পুলিশ কর্মকর্তাকেও ওই গণমাধ্যম কর্মির নামে নাস্তানাবুদ করে।

সাভার মডেল থানার উপ পরিদর্শক (এসআই ) রুবেল হোসেন জানান,আব্দুস সালাম রুবেলসহ তিনজনের বিরুদ্ধে পরিবহন ব্যবসায়ি আপেল মাহমুদের করা অভিযোগটি মামলা হিসেবে থানায় রেকর্ড করা হয়েছে।মামলা নং ৬৭। তাদেরকে ৫ দিনের রিম্যান্ড চেয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।

সাভার মডেল থানার ওসি এ এফ এম সায়েদ জানান,এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ি ও ইয়াবা কারবারী। সে একজন প্রভাবশালী গণমাধ্যম কর্মির নাম ভাঙ্গিয়ে এলাকায় চাঁদাবাজী থেকে শুরু করে মাদক বিপনন করে আসছিলো তিনি।

আস/এসআইসু

Facebook Comments