সবচেয়ে বেদনাদায়ক ঈদ হবে এবার

আলোকিত সকাল ডেস্ক

এবারের ঈদ বাংলাদেশের সবচেয়ে বেদনাদায়ক হবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবীর রিজভী আহমেদ।

তিনি বলেন, দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেত্রী খালেদা জিয়াকে অবৈধ ক্ষমতার জোরে কারাবন্দি রাখা হয়েছে। ধানের ন্যায্য মূল্য না পাওয়ায় কোটি কোটি কৃষকের ঘরে ঘরে কোনো ঈদ আনন্দ নেই। বেশির ভাগ মানুষের পকেটে টাকা না থাকায় মার্কেটগুলো প্রায় ফাঁকা, বেচাকেনা নেই সেটি স্বীকার করেছেন ব্যবসায়ীরা। এমপিওভুক্ত স্কুল-মাদ্রাসার অনেক শিক্ষকরা এখনও বেতন-বোনাস পাননি। তাদের মনেও ঈদের আনন্দ নেই। দেশে কোটি কোটি যুবক বেকার। তাদের ঘরেও ঈদের আনন্দ নেই।

সোমবার (০৩ জুন) দুপুরে নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন রিজভী আহমেদ।

এসময় তিনি বলেন, সরকারের নিয়ন্ত্রণে থাকা নিম্ন আদালত থেকে কিভাবে ভয়ংকর জঙ্গিরা জামিন পাচ্ছে? সরকার জঙ্গি দমনের নামে যা করছে তা পরিকল্পিত নাটক কি না তা নিয়ে জনমনে দীর্ঘদিন থেকে সংশয় রয়েছে।

রিজভী বলেন, র‌্যাবের মহাপরিচালক বলেছেন-গুলশানের হলি আর্টিজান হামলার পর থেকে গ্রেফতার হওয়া জঙ্গিদের মধ্যে ৩০০ জন পলাতক রয়েছেন। ২০১৬ সালের ওই হামলার পর গ্রেফতারকৃত ৫১২ জন জঙ্গির মধ্যে ৩০০ জন জামিনে রয়েছেন। জামিনে থাকা জঙ্গিদের মধ্যে অধিকাংশ এখন পলাতক। র‌্যাব এর মহাপরিচালকের বক্তব্য শুনে সারাজাতি বিস্মিত ও স্তম্ভিত। জঙ্গিরা জামিন পাচ্ছে কিভাবে ? আমরা জানি নিম্ন আদালত সম্পূর্ণরূপে সরকারের করায়ত্ত্বে। গণতান্ত্রিক আন্দোলনে অংশগ্রহণের জন্য বিএনপিসহ বিরোধী দলের নেতাকর্মী, মানবাধিকার কর্মী, বরেণ্য আইনজীবী কেউই নিম্ন আদালত থেকে জামিন পান না। তাহলে জঙ্গিরা কিভাবে জামিন পান।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা সুকোমল বড়ুয়া, নাজমুল হক নান্নু, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, সহ-দপ্তর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপু প্রমুখ ।

আস/এসআইসু

Facebook Comments Box