শ্রীনগরে গৃহবধুকে উঠিয়ে আনতে হামলার ঘটনায় আহত ৫

আরিফুল ইসলাম শ্যামল

মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগরে এক গৃহবধুকে উঠিয়ে আনতে বাড়িতে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনায় ৯ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেছেন গৃহবধুর চাচা বাবু বেপারী। হামলার ঘটনায় গৃহবধুসহ পরিবারের ৫ জন আহত হয়েছে। গত ৩০ মে বৃহস্পতিবার রাত সোয়া ৯ টার দিকে উপজেলার বাঘড়া ইউনিয়নের উত্তর জাহানাবাদ গ্রামের গৃববধুর বাবা আয়নাল বেপারীর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় ও মামলা সূত্রে জানাযায়, একই গ্রামের মিলন মোড়লের ছেলে শাকিল মোড়ল (২২) তার দলবল নিয়ে ওই গৃহবধুকে ঘর থেকে জোরপূর্বক উঠিয়ে আনতে চেষ্টা চলায়। এসময় গৃহবধু মারিয়া আক্তার (২০) কে টানাহেচরা ও মেরে আহত করে। পরিবারের লোকজন তাকে বাচাতে এগিয়ে আসলে শাকিল ও তার সহযোগিরা হামলা চালায়। এতে করে ওই হালাকারীদের আঘাতে গৃহবধুসহ শহিদ মোড়ল (৬০), ইসমো তারা (২৭), সোনা মিয়া (৩০), আবু বেপারী (৩০) আহত হয়। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে।

মামলার বাদী বাবু বেপারী বলেন, ২ মাস পূর্বে আমার ভাতিজীকে পারিবারিক ভাবে ফরিদপুরের সদরপুরে বিয়ে দেই। বিয়ের পূর্বেও ভাতিজীকে শাকিল নানা সময়ে প্রেমের প্রস্তব দিতো ও জোর করে উঠিয়ে নেয়ার হুমকি দিয়ে আসছিলো। ঈদ উপলক্ষ্যে ভাতিজী বাড়িতে বেড়াতে আসলে শাকিল ও তার সহযোগিরা তাকে উঠিয়ে নিতে ওই দিন রাতে আমাদের বাড়িতে এসে জোরপূর্বক তোলে নেয়ার চেষ্টা করে। লোকজন বাধা দিলে বাড়িতে ভাংচুর ও পরিবারের ওপর হামলা চালিয়ে সবাইকে আহত করে। উপায় না পেয়ে গত ০৪ জুন মঙ্গলবার থানায় একটি মামলা দায়ের করি। স্থানীয় ইউপি সদস্য আফজাল শেখ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, আশপাশের লোকজনের চেচামেচি শব্দ শুনতে পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে শাকিল গংদের হামলা করার দৃশ্য দেখতে পাই। এবং আহতদের চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে পাঠাই।

মামলারটির তদন্ত কর্মকর্তা শ্রীনগর থানার এসআই শরীফ আশিকুর রহমান জানান, এ ঘটনায় মামলা দায়ের হয়েছে। ঈদের ছুটিতে ছিলাম। এখন আসামীদের ধরতে অভিযান চালানো হবে।

আস/এসআইসু

Facebook Comments Box