লক্ষ্মীপুরে ১৪ বছর কারাবরন,পিতার মুক্তির দাবিতে মেয়ের সংবাদ সম্মেলন

 

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি :লক্ষ্মীপুরের কমলনগরে পিতা আবদুল গফুরের মুক্তির দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছে মেয়ে জেসমিন আক্তার। আজ সমবার সকাল কমলনগর উপজেলার চরকালকিনি এলাকার আবদুল গফুরের নিজ বাড়ীতে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে কারাবরনকারী আবদুল গফুরের মেয়ে জেসমিন আক্তার জানায় ২০০৬ সালের ৯ ইং আগষ্ট তার মা ফাতেমা আক্তার প্রতিদিনের ন্যায় খাবার খেয়ে ঘুমানোর পর সকালে উঠে তার মাকে ঘরের ভিতরেই মৃত অবস্থায় দেখতে পায়। স্থানীয় পল্লী চিকিৎসক আনলে তার মায়ের মৃত্যু বিষাক্ত সাপের কামড়ে হয়েছে বলে মাতামত দেয়।

পরে এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে তার নানা সামছুল ইসলাম বাদী হয়ে কমলনগর থানায় তার বাবা আবদুল গফুর, চাচা মোঃ হানিফ, মোঃ মোস্তফা এবং আবদুল আলীসহ ৪জনকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। পরে চার্জসীট থেকে তার চাচা জেঠাসহ তিন জনকে বাদ দেয়া হয়। তার বাবা গত১৪ বছর কারাবরন করতে হয়। তার দাবী অভাব অনটনের কারনে টাকা পয়সা না চালাতে পারানোর কারনে তার বাব জেল খাটছে। তিনি আরো দাবি করেন তার বাবা নির্দোষ। তার মা সাপের কামড়েই মারা গেছে। বর্তমানে তার বাবা কাশিমপুর কারাগারে ভর্তি আছে। তিনি প্রধানমন্ত্রী এবং রাষ্ট্রপতির কাছে তার বাবাকে ক্ষমার দাবি জানান। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন তার চাচা মোঃ হানিফ, মোঃ মোস্তফা এবং জেঠা আবদুল আলী।

 

Facebook Comments Box