রোনালদোও পেনাল্টি মিস করেন

৭১কণ্ঠ ডটকম
পেনাল্টি তিনি মিস করেন খুব কম। ক্যারিয়ারে তাই পেনাল্টি থেকে গোলের সংখ্যা বেশ। আর তাই তাকে অনেকে ডাকেন পেনালদো বলে। ভক্তরা অবশ্য তাতে ক্ষেপে যান। কারণ তাদের কাছে তিনি পেনালদো নন, রোনালদোই।
ইদানিং পেনাল্টি থেকে বেশ কিছু গোল করেছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। শেষ দুটি ম্যাচে চারটি গোল পেয়েছেন রোনালদো, তার সবকটিই পেনাল্টি থেকে। কিন্তু সেই রোনালদো বুধবার রাতে করলেন পেনাল্টি মিস। গোলও মিস করলেন বাজে কয়েকটি শটে। ফলে তার দল জুভেন্টাসও ভুগল পুরো মাত্রায়। কাঙ্ক্ষিত জয় এলো না। ইতালিয়ান সিরিআতে ঘরের মাঠে আটলান্টার সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করেছে পিরলো শিবির।
পাঁচ মাস আগে সবশেষ দেখায় এই আটলান্টার বিরুদ্ধে হারতে বসা ম্যাচে দলকে বাঁচিয়েছিলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। গত জুলাইয়ে দলটির বিপক্ষে ঘরের মাঠে দুবার পিছিয়ে পড়ে শেষ সময়ের গোলে ২-২ ড্র করেছিল জুভেন্টাস। তাদের দুটি গোলই পেনাল্টি থেকে করেছিলেন রোনালদো। পেনাল্টি থেকে এবার সুযোগ পেয়েছিলেন পার্থক্য গড়ে দেওয়ার; কিন্তু জালের দেখা পাননি সিআরসেভেন। ম্যাচের সাত মিনিটে গোলের দেখা পেতে পারত জুভেন্টাস। কিন্তু শিশুতোষ ভুল করেন রোনালদো। তবে ২৯ মিনিটে লিড নেয় জুভ শিবির। দলকে এগিয়ে দেন ফেডরিকো চিয়েসা। জুভেন্টাসের হয়ে সিরিআ তে প্রথম গোল চিয়েসার।
দ্বিতীয়ার্ধের ৫৭ মিনিটে ম্যাচে সমতা আনে আটলান্টা। ডি-বক্সের বাইরে থেকে দারুণ শটে জুভেন্টাসের জাল কাঁপান ফ্রয়লার (১-১)। ৬০ মিনিটে চিয়েসা ডি-বক্সে ফাউলের শিকার হওয়ায় পেনাল্টি পায় জুভেন্টাস। কিন্তু আগের দুই ম্যাচে স্পট কিকে চার গোল করা রোনালদোর দুর্বল শট অনায়াসে ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক। ৭৩ মিনিটে স্ট্যাসনির নৈপুণ্যে বেঁচে যায় স্বাগতিকরা; কর্নারে ক্রিশ্চিয়ান রোমেরোর হেড ঝাঁপিয়ে ফেরান গোলরক্ষক। ৮২ মিনিটে গোমেসের কোনাকুনি শটও ঝাঁপিয়ে ঠেকান স্ট্যাসনি। ৮৭ মিনিটে ডি-বক্সের বাইরে থেকে রোনালদোর নেয়া বাঁকানো শট ক্রসবারের একটু ওপর দিয়ে চলে যায়। মৌসুমের শুরু থেকে বারবার হোঁচট খাওয়া জুভেন্টাসের এটি ষষ্ঠ ড্র। ছয় জয়ে ১২ ম্যাচে ২৪ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে আছে টানা নয়বারের চ্যাম্পিয়নরা। ১১ ম্যাচে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে আটলান্টা আছে অষ্টম স্থানে।

Facebook Comments