রামগতিতে মসজিদের জমি আত্মসাতের অভিযোগ কমিটির বিরুদ্ধে

রামগতি (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি : লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলা পৌর ০৮নং ওয়ার্ডের আর.সি.নগর জামে মসজিদের ২০ শতাংশ জমি প্রতারণার মাধ্যমে আত্মসাতের অভিযোগ উঠে ঐ মসজিদ কমিটির সাবেক সভাপতি কামাল উদ্দিনের বিরুদ্ধে।

উক্ত অভিযোগ এর প্রেক্ষিতে পহেলা জুন’ সোমবার সন্ধ্যায় বর্তমান মসজিদ কমিটি পক্ষে সভাপতি মোঃ নুরুল আমিনের নেতৃত্বে রামগতি প্রেস ক্লাবের হলরুমে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে।

রামগতি পৌরসভার ০৮নং ওয়ার্ডে অবস্থিত আর.সি.নগর জামে মসজিদটি অতিপ্রাচীন ও পুরাতন বলে জানা যায়। প্রায় দীর্ঘ ২৫ বছর স্থাপনার বয়স হলে ও প্রায় ২০ বছর যাবৎ সাবেক সভাপতি কামাল উদ্দিন বিভিন্ন তাল বাহানা করে উক্ত মসজিদ কমিটির সভাপতি দায়িত্ব পালন করে আসছে। এমতাবস্থায় মসজিদে কমিটির অন্যান্য সদস্যগন মসজিদের জায়গা মসজিদের নামে দলিল রেজিষ্ট্রি করার দায়িত্ব দেন। কিন্তু সাবেক সভাপতি কামাল উদ্দিন দীর্ঘদিন যাবৎ দলিল না করে ঘুরাঘুরি করে। পরে বর্তমান কমিটি জানতে পারে মসজিদের ঐ জমি কামাল উদ্দিন গোপনে তার নিজের নামে দলিল রেজিষ্ট্রি করে। এবং পরে মসজিদের কোন জমি নাই বলে অপপ্রচার চালায়। তাহার নিকট কেউ মসজিদের জমির ব্যাপারে জানতে চাইলে কমিটির লোক ও মুসুল্লিকে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করে এবং গুম ও খুনের হুমকি দেয়। এ ব্যাপারে এলাকার গণ্যমান্য ও মুসুল্লিদের মধ্যে চাঞ্চল্যকর ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।

বর্তমান মসজিদ কমিটির পক্ষে সভাপতি মোঃ নুরুল আমিন বাদী হয়ে রামগতি থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেন, যাহা জিডি নং-১০০৩/২০, তাং- ৩০/০৫/২০২০ইং। এ ব্যাপারে সু-বিচার ও প্রতিকার চেয়ে রামগতি উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবদুল মোমিনের নিকট একটি আবেদন দাখিল করেন। উল্লেখ্য আবেদন ও সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে বর্তমান মসজিদ কমিটি ও এলাকার মুসুল্লিগন পবিত্র ধর্মশালা আর.সি.নগর জামে মসজিদের ২০ শতাংশ জমি পূর্ণ উদ্ধার হওয়ার ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট আইন প্রয়োগকারী সংস্থা ও সকলের আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেন এবং মসজিদের জমি আত্মসাৎ কারী প্রতারক কামাল উদ্দিনের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করেন।

Facebook Comments Box