মা হওয়ার প্রশ্নে খ্যাপেছেন আনুশকা

আলোকিত সকাল ডেস্ক

বিয়ের পর থেকেই বিরাট কোহেলি এবং আনুশকা শর্মার সম্পর্কের রসায়ন বারবার এসেছে খবরের শিরোনামে। শুধু যে তারকা দম্পতি হওয়ার কারণে, তা নয়। নজর কেড়েছে তাদের একে অপরের প্রতি ভালোবাসা, বিশ্বাস, সম্মান প্রদর্শনের একাধিক মুহূর্ত। তবে এসবের সঙ্গে সঙ্গেই বারবার গুঞ্জন উঠেছে আনুশকার মা হওয়ার খবর নিয়ে। বিষয়টি নিয়ে এতদিন হেসে উড়িয়ে দিলেও এবার অনেকটাই খ্যাপে গেছেন এই অভিনেত্রী। মা হওয়ার প্রশ্নে এবার বিরক্তির সঙ্গে আনুশকা বলেন, ‘বিয়ের পর সবার মনেই মহিলাদের অন্তঃসত্ত্বা হওয়া নিয়ে নানা প্রশ্ন শুনতে হয়। আর এ ধরনের কিছু না থাকলেও লোকে এগুলো শুনতে ভালোবাসে। কিন্তু কোনো কিছু না জেনে এভাবে ঢালাওভাবে যাচ্ছেতাই মন্তব্য যারা করছেন, তারা আসলে আমার শত্রম্ন পক্ষ। এগুলো বিশ্রী ব্যাপার। মোটেই বাঞ্ছনীয় নয়। এর মাত্রা ছেড়ে গেলে তাদের বিরুদ্ধে আমি আদালতে যেতে বাধ্য হব। আমার সব থেকে বিরক্ত লাগে এই সমস্ত প্রশ্নগুলো যখন ভেঙে ভেঙে লোককে বোঝাতে হয়। একটু অন্য ধরনের পোশাক পরাও বিপদ! সবাই ভেবে বসে সেই অভিনেত্রী বোধ হয় সন্তানসম্ভবা। রাবিশ কোথাকার।’

বিরক্তি শেষে সংবাদ মাধ্যমের কর্মীদের প্রতি বিনয়ের স্বরে আনুশকা বলেন, ‘তারকাদের একটু তাদের নিজেদের মতো করে বাঁচতে দিন। একজন অভিনেত্রী বিয়ে করলেই দিন কয়েক বাদে বাদেই প্রশ্ন ওঠে শুরু করে, যে সে কি মা হতে চলেছে? আর প্রেমের ক্ষেত্রে প্রশ্ন তোলে বিয়েটা কবে সারছে তারা! আর পাঁচটা মানুষের মতো বাঁচতে দিন আমাদেরও। কেউ অন্তঃসত্ত্বা কি না, হঠাৎ করে সিদ্ধান্তে পৌঁছনোর কী প্রয়োজন?’

উলেস্নখ্য, ২০১৯-এর বিশ্বকাপের সময়ে ইংল্যান্ডে বিরাটের সফরসঙ্গী ছিলেন পত্নী অনুষ্কা শর্মা। খেলার মাঝে স্ত্রীর সঙ্গে ‘কোয়ালিটি টাইম’ও কাটিয়েছেন ভারতের ক্রিকেট অধিনায়ক। আর বিশ্বকাপ সফর শেষে ফিরে আসার পর থেকেই অনুষ্কার প্রেগন্যান্ট হওয়ার খবর মাথা চাড়া দিয়ে ওঠে।

আস/এসআইসু

Facebook Comments