ভারতে শেষ ধাপের নির্বাচন রোববার

আলোকিত সকাল ডেস্ক

বিশ্বের বৃহৎ গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র ভারতের ১৭তম লোকসভা নির্বাচনের শেষ পর্বে রোববার (১৯ মে) দেশটির ৭টি রাজ্যে ও একটি ইউনিয়ন ভূখন্ডে ৫৯টি সংসদীয় আসনে ভোট অনুষ্ঠিত হবে।

এই নির্বাচনে ভোটের ৭ম ও শেষ পর্বে ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি), কংগ্রেসসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের ৯১৮ জন এবং একজন স্বতন্ত প্রার্থীর ভাগ্য নির্ধারনে ১০কোটির অধিক ভোটার ভোট দিবেন।

রোববার বিহারে ৮টি আসনে, হিমাচলে ৪টি আসনে, ঝাড়খন্ডে ৩টি আসনে, মধ্যপ্রদেশের ৮টি আসনে, পাঞ্জাব ও উত্তর প্রদেশের প্রতিটিতে ১৩টি করে, পশ্চিম বঙ্গে ৯টি এবং চন্ডিগড়ে ১টি আসনে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

সকলের দৃষ্টি এখন বারানসির দিকে। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এই আসনে প্রতিদ্বন্দিতা করছেন। বিজেপির শক্ত ঘাটি হিসেবে এ আসনটি পরিচিত। এ আসনে সমাজবাদি দল থেকে শালিনি যাদব, কংগ্রেস থেকে অজয় রায় এবং নিরপেক্ষ প্রার্থী আতিক আহমেদ প্রতিদ্বন্দিতা করছেন।

২০১৪ সালের নির্বাচনে এই আসনে নোরেন্দ্র মোদি ৩ লাখ ৭০ হাজার ভোটের ব্যবদানে অরবিন্দ কেজরিওয়ালকে পরাজিত করেন। ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনের ৭ম ও শেষ পর্বের এই নির্বাচনের প্রচরনা রোববার (পশ্চিমবঙ্গ ছাড়া) শেষ হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেস ও দলের প্রতিদ্বন্দি বিজেপি কর্মীদের মধ্যে প্রচন্ড সংঘর্ষ হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে রাখতে এবং শান্তিপূর্ণ পরিবেশে নির্বাচন অনুষ্ঠানে কর্তৃপক্ষ রাজ্যে অতিরিক্ত নিরাপত্তা কর্মী নিয়োগ করে।

ভারতের নির্বাচনের এই শেষ পর্বের ভোটে দেশটির কেন্দ্রীয় মন্ত্রি, বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ এবং চলচিত্র অভিনেতাসহ একাধিক আলোচিত নেতার ভাগ্য নির্ধারন হবে। এ নির্বাচনে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিদের মধ্যে মনোজ সিনহা(বিজেপি), রাম কৃপাল যাদব (বিজেপি), আশবানি কুমার চৌবে (বিজেবি), বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ কিরন খের (বিজেপি), হারসিমরাট বাদল (এসএডি), প্রীনিত কাউর (কংগ্রেস), অভিনেতা শত্রুঘ্ন সিনহা(কংগ্রেস) এবং সানি দেওল (বিজেপি), ঝাড়খন্ডের তিন বারের মুখ্যমন্ত্রী শিবু সোরেন, পশ্চিম বঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীর ভাতিজা অভিষেক ব্যানার্জী প্রতিদ্বন্দিতা করছেন।

ভারতের নির্বাচন কমিশন গত ১০ মার্চ বিশ্বের বৃহৎ এই গণতান্ত্রিক রাষ্টের ৫৪৩ টি আসনে লোক সভা নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন। ১১ এপ্রিল প্রথম পর্ব নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এরপর ১৮ এপ্রিল দ্বিতীয় পর্ব, ২৩ এপ্রিল তৃতীয় পর্ব, ২৯ এপ্রিল চতুর্থ পর্ব , ৬ মে পঞ্চম পর্ব, ১২ মে ৬ষ্ঠ পর্ব ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ি আগামী ২৩ মে নির্বাচনী ফলাফল ঘোষণা করা হবে। বর্তমান পার্লামেন্টের মেয়াদ ৩ জুন শেষ হবে।

আস/এসআইসু

Facebook Comments Box