বোলিং ব্যর্থতায় হোয়াইটওয়াশ পাকিস্তান

আলোকিত সকাল ডেস্ক

বোলারদের বিচক্ষণতার অভাবে আরও একটি পরাজয় দেখল পাকিস্তান। সরফরাজ আহমেদের নেতৃত্বাধীন দলটি ইংল্যান্ডের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে ৪-০তে হেরেছে। সিরিজের প্রথম ম্যাচটি বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত হয়। ইংল্যান্ড সফরে দুর্দান্ত ব্যাটিং করে রানের পাহাড় গড়েও তিন ম্যাচে জয়ের দেখা পায়নি পাকিস্তান।

রবিবার (১৯ মে) সিরিজের শেষ ম্যাচে পাকিস্তানের বোলারদের তুলোধুনে করে ৯ উইকেটে ৩৫১ রানের পাহাড় গড়ে স্বাগতিক ইংল্যান্ড।

৩৫২ রানের পাহাড়সম টার্গেট তাড়া করতে নেমে ৬ রানে ৩ উইকেট হারানো পাকিস্তানকে খেলায় ফেরান সরফরাজ ও বাবর আজম। তাদের দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ের পরও ৫৪ রানে হেরে যায় পাকিস্তান।

বাবর আজম ও সরফরাজের দুজনই সেঞ্চুরির কাছাকাছি গিয়ে ব্যর্থ হন। দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ের পরও সেঞ্চুরির আক্ষেপ নিয়ে মাঠ ছাড়েন তারা। পাঁচ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের চতুর্থ খেলায় সেঞ্চুরি (১১৫) করা বাবর আজম আজকের এই ম্যাচে ফেরেন ৮৩ বলে ৮০ রান করেন। তার ইনিংসটি ৭৮ বলে সাতটি চার ও ২টি ছক্কায় সাজানো।

বাবর আজমের পর সেঞ্চুরির অপেক্ষায় ছিলেন সরফরাজ আহমেদ। কিন্তু বাবরের মতো সরফরাজও হতাশ হয়ে মাঠ ছাড়েন। দুজনই ফেরেন রান আউট হয়ে। তার আগে ৮০ বলে ৭টি চার ও দুটি ছক্কায় ৯৭ রান করেন পাকিস্তান অধিনায়ক সরফরাজ।

টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং করে ইংল্যান্ড। ২ উইকেটে ২২২ রান করা স্বাগতিক দলটি এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারায়। সময়ের ব্যবধানে উইকেট পতন হলেও ব্যাটিং ঝড় অব্যাহত রাখতে সক্ষম হয় ইংলিশরা। যে কারণে কোনো সেঞ্চুরি ছাড়াই সাড়ে তিনশ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর গড়ে ইয়ন মর্গানের নেতৃত্বাধীন দলটি।

ইংল্যান্ডের হয়ে সর্বোচ্চ ৮৪ রান করেন জো রুট, ৭৬ রান করেন অধিনায়ক ইয়ন মর্গান। পাকিস্তানের হয়ে ৮২ রানে ৪ উইকেট শিকার করেন শাহিন শাহ আফ্রিদি। ৫৩ রানে ৩ উইকেট নেন অলরাউন্ডার ইমাদ ওয়াসিম।

আস/এসআইসু

Facebook Comments