বেকারত্ব বাড়ছে চলচ্চিত্র শিল্পে

আলোকিত সকাল ডেস্ক

সময়ের সঙ্গে সঙ্গে অনেকখানি পাল্টে যাচ্ছে দেশীয় চলচ্চিত্রের পরিবেশ। সিনেমা হলের পাশাপাশি ক্রমেই কমে আসছে সিনেমা নির্মাণের সংখ্যা। আর সিনেমা নির্মাণ যত কমছে, ততই বাড়ছে বেকার শিল্পী ও কলাকুশলীদের সংখ্যা। বিকল্প পথ খুঁজতে প্রিয় চলচ্চিত্র পরিবার থেকেও নিজেদের সরিয়ে নিচ্ছেন অনেক তারকা শিল্পী ও খ্যাতিমান নির্মাতারা। বেকারত্ব কাটাতে অনেকেই আবার ঝুঁকছেন ছোটপর্দা ও ওয়েব সিরিজের দিকে। কিন্তু নানা অভিযোগ-আপত্তি আর জটিলতার কারণে কমে গেছে ওয়েব সিরিজ নির্মাণের সংখ্যাও। সব মিলিয়ে ক্রমশ হাহাকার বাড়ছে চলচ্চিত্র তারকাদের মাঝে। পপি, রিয়াজ, ফেরদৌস, অপু বিশ্বাস, নিপুন, পূর্ণিমাদের মতো বেকার হয়ে পড়ছেন নতুন প্রজন্মের তারকা জায়েদ খান, বাপ্পি, সাইমন, আরিফিন শুভ, মিষ্টি জান্নাত, ববি, অধরার মতো নায়ক-নায়িকারাও। কেবলমাত্র শাকিব খান ছাড়া কারও হাতেই উলেস্নখযোগ্য কোনো সিনেমা নেই। শবনম বুবলি, রোশান, মাহিয়া মাহী, আর নুসরাত ফারিয়া এবং পরীমনির হাতেও দুয়েকটি ছবি।

এইতো কিছুদিন আগে এফডিসির গেট দিয়ে ঢুকতেই চোখে পড়ত একাধিক শুটিং। কিন্তু বর্তমানে এই অঙ্গনে টিভি নাটক আর কয়েকটি ফ্লোরে টিভি অনুষ্ঠানের শুটিং চললেও পুরো এফডিসি এখন শুধু হাহাকার। বিংশ দশকে নায়কদের ক্ষেত্রে চিত্রনায়ক রুবেল, মান্না, ডিপজল, শাকিল খান, রিয়াজ, ফেরদৌস, আমিন খান, আলেক জেন্ডার বো ও শাকিব খানসহ সবাই রাজত্ব করলেও চিত্রনায়ক মান্নার মৃতু্যর পর টানা রাজত্ব করেছেন একমাত্র শাকিব খান। এরপর জাজ মাল্টিমিডিয়ার মাধ্যমে চিত্রনায়ক বাপ্পি, সাইমন সাদিক, আরেফিন শুভ, জলি, রোশানদের আর্বিভাব দেখা গেলেও দু-একটি ছবি ব্যবসায়িকভাবে সফলতা ছাড়া আলোর মুখ দেখতে পারছেন না তারা।

বিকল্প পথ হিসেবে অনেকেই আবার অভিনয়ের পাশাপাশি ব্যবসা-বাণিজ্যে মনোনিবেশ করছেন। চিত্রনায়িকা নিপুন নিজের একটা ফ্যাশন হাউস খুলেছেন অনেকদিন ধরে। আরেক নায়িকা মিষ্টি জান্নাত ক্যাফে নামে একটি রেস্টুরেন্ট খুলেছেন বছর দুই আগে। ঢাকাই ছবিতে তার চাহিদা কমে যাওয়ায় কলকাতার সঙ্গে যৌথ প্রযোজনায় সিনেমা নির্মাণ করেও খুব একটা সফলতার মুখ দেখেননি এই তারকা। আবার শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান অনেকটা ছবিশূন্য হয়ে বসে আছেন। হাতে তেমন কোনো ছবি না থাকায় সমিতির কার্যালয়েই বেশি বসে থাকতে দেখা যায় এই নায়ককে। আবার একসময়ের তুমুল ব্যস্ত নায়িকা অপু বিশ্বাস বসে আছেন বেকার হয়ে। দেশের মাটিতে তার হাতে একটিমাত্র ছবি আছে। তবে দেশের মাটিতে কাজ না থাকলেও অপু বিশ্বাস চেষ্টা করছেন কলকাতার ছবিতে স্থায়ী হতে। পাশাপাশি বিদেশের মাটিত স্টেজ প্রোগাম করেও কিছুটা বেকারত্ব দূর করার চেষ্টা করছেন তিনি।

অন্যদিকে নায়িকাদের মধ্যে শাকিব খানের সঙ্গে একমাত্র অপু বিশ্বাসের টানা একাধিক ছবি ব্যবসায়িকভাবে সফলতা দিলেও বর্তমানে নায়িকা বুবলি ছাড়া অন্য কোনো নায়িকাকে দেখা যাচ্ছে না শাকিবের বিপরীতে। মাঝখানে শাবনুর, নিপুন, সাহারা, রেসি, অপু, আঁচলদের চোখে পড়লেও পরে নতুনদের আর্বিভাবে দেখা মেলে মাহী, বিদ্যা সিনহা মিম, পরীমনি, ববি, জলি, নিঝুম রুবিনা, মিষ্টি জান্নাত, অধরা, নুসরাত ফারিয়াসহ অনেকের। তবে শাকিব খানের বিপরীতে বিদ্যা সিনহা মীম আর জাজের বিপরীতে মাহিয়া মাহি ছাড়া এ পর্যন্ত যতো নায়িকা এসেছে, সবই টানা ফ্লপের তালিকায় দেখা গেছে।

বেকারত্ব কাটাতে অনেকেই ঝুঁকে গেছেন ইউটিউব কনটেন্ট ওয়েব সিরিজ, মিউজিক ভিডিও, শর্টফিল্মের দিকে। তবে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ওয়েব সিরিজগুলোও খুব একটা লাভের মুখ না দেখায় অনেকেই আগ্রহ হারিয়ে ফেলছে এই সিরিজের ওপর।

আস/এসআইসু

Facebook Comments Box