বিশ্বকাপে নজর কাড়ছেন এই পাক সুন্দরী

আলোকিত সকাল ডেস্ক

বিশ্বকাপের যুদ্ধ শুরু হয়ে গিয়েছে। বেশির ভাগ দেশই তাদের প্রথম ম্যাচ খেলে ফেলেছে। এ বারের বিশ্বকাপে ক্রিকেটাররা ছাড়াও নজর থাকছে বেশ কয়েক জনের দিকেও। এরকমই একজন ধারাভাষ্যকারের সঙ্গে পরিচয় করা যাক। ডাকসাইটে সুন্দরী এই ধারাভাষ্যকার পাকিস্তানের ক্রীড়া সাংবাদিক।

এই তরুণীকে নিয়ে তোলপাড় সোশ্যাল মিডিয়া। বলা হচ্ছে, বিশ্বকাপে সংবাদমাধ্যমের নজর থাকবে এই তরুণীর দিকে। ছোট থেকেই পরিবারের সঙ্গে ক্রিকেট দেখতে দেখতে দক্ষতা জন্মায় তাঁর। কোনওরকম পূর্ব অভিজ্ঞতা ছাড়াই ক্রীড়া সাংবাদিক হওয়ার জন্য আবেদন করেন। ক্রিকেটে দক্ষতার কারণেই মেলে সুযোগ।

জয়নাব আব্বাস নামে এই তরুণীর মা পাকিস্তানে রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত। পাকিস্তানি সুপার লিগের কারণে জনপ্রিয় মুখ হয়ে ওঠেন তিনি। চ্যাম্পিয়নস ট্রফির সময় পাকিস্তানের ‘ন্যাশনাল লাকি চার্ম’ পুরস্কার পেয়েছেন তিনি। এই সঞ্চালিকা অফার পেয়েছেন নায়িকা হওয়ারও।

মডেলিংও করেছেন কিছু বিজ্ঞাপনী ছবিতে। মণীশ মলহোত্রর ফ্যাশন শো’য়ে র‌্যাম্পে হেঁটেছেন তিনি। নিজেও মেক ওভার আর্টিস্ট হিসাবে কাজ করেন তিনি। বিরাট কোহালি ও এবি ডেভিলিয়ার্সের সঙ্গে ছবি তোলার কারণে ট্রোলিংয়ের শিকার হয়েছিলেন। আইপিএলের একটি ম্যাচে আরসিবিকে সমর্থনের জন্যেও পাকিস্তানে ট্রোলিংয়ের শিকার হন তিনি।

জয়নাব পড়াশোনা করেছেন ম্যানেজমেন্ট নিয়ে ওয়ারউইক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে। ১২ জনের পরিবারে বেড়ে উঠেছেন, তাই আদরেই মানুষ। সে কারণেই কাজে কখনও বাধা আসেনি পরিবারের তরফে, জানান জয়নাব।

তবে শুধুমাত্র মহিলা হওয়ার কারণে পাকিস্তানের এক বিখ্যাত ক্রিকেটার তাঁকে সাক্ষাৎকার দিতে চাননি, এমনটাও অভিযোগ করেছিলেন তিনি। ক্রিকেটারের নাম অবশ্য গোপনই রেখেছিলেন জয়নাব।

সোশ্যাল মিডিয়ায় জয়নাব জানিয়েছেন, তিনি বেশ ভুলো মনের। এর ফলে নাকি একবার বিমানও মিস করেছিলেন এক বার। ভারত অধিনায়ক রোহিত শর্মা, বলিউড তারকা বিপাশা বসু, কিয়ারা আডবাণীর সঙ্গেও বন্ধুত্ব রয়েছে তাঁর।

আস/এসআইসু

Facebook Comments Box