বিপুল অর্থ-সম্পদের কারণেই এরিককে নিয়ে টানা-হ্যাঁচড়া

আলোকিত সকাল ডেস্ক

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ মৃত্যুর আগে প্রায় ৫০ কোটি টাকার স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তির যে ট্রাস্ট করে গেছেন তার পুরোটার মালিক এখন এরিক এরশাদ। এরশাদের মৃত্যুর পরদিন নিজ সন্তান এরিকের সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে বারিধারায় সাবেক স্বামীর বাড়িতে ঢুকতে না দেয়ার অভিযোগ বিদিশার। তাকে নিয়ে চলছে টানা-হেচড়া

এরিকের ভোগদখলে থাকা অর্ধশত কোটি টাকা সম্পত্তির কারণেই এ টানা-হ্যাচড়া, বলছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

এদিকে এ বিষয়ে গণমাধ্যমে ক্ষোভও জানান বিদিশা। অভিযোগ করেন, ট্রাস্টের সম্পত্তির লোভেই তার সঙ্গে এরিককে দেখা করতে দেয়া হচ্ছে না।

সন্তানের অধিকার নিয়ে করা বিদিশার মামলার সেই সময়ের আইনজীবী ব্যারিস্টার তুরিন আফরোজ জানান, কোনো আইনেই এরিককে তার মার সঙ্গে দেখা করতে বাধা দিতে পারে না। তার বাবার অবর্তমানে তার দায়িত্ব মায়ের।

তবে বারিধারা বাড়িতে বিদিশাকে প্রবেশ করতে না দেয়ার বিষয়ে এরশাদের সম্পত্তির ট্রাস্টের দেখভালকারী মেজর খালেদ জানান, বিদিশার বিষয়ে প্রয়াত এরশাদের কিছু বাধা নিষেধ ছিলো। আর এরিকও তার মায়ের সাথে দেখা করতে চায় না।

তিনি বলেন, এরশাদের সাবেক স্ত্রী হিসেবে সন্তান এরিকের দায়িত্ব নিতে আবারও আইনের আশ্রয় নেয়ার সুযোগ রয়েছে মা বিদিশার। তবে এ নিয়ে কোনো রাজনীতি বা ষড়যন্ত্র নেই।

এরশাদ-বিদিশা দম্পতির বিয়ে বিচ্ছেদের পর ২০১১ সালে আদালতের আদেশে এরিকের দেখভালের দায়িত্ব পান এরশাদ।

আস/এসআইসু

Facebook Comments