বাসাবাড়ি গিয়ে এডিস মশা মারবে ডিএসসিসি

আলোকিত সকাল ডেস্ক

দিন যত যাচ্ছে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা ততই বাড়ছে। ডেঙ্গুমুক্ত শহর গড়তে নগরবাসীকে সচেতন হবার পাশাপাশি সহায়তার করার আহ্বান জানিয়ে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন বলেছেন, ‘আজ থেকে পক্ষকাল ব্যাপী বিশেষ প্রোগ্রাম চালু করা হল। আমাদের ৫৭টি ওয়ার্ডে আমাদের পরিদর্শক টিম, পরিচ্ছনতা টিম ও স্বাস্থ্য টিমের প্রতিনিধিরা যাবে। যে বাসায় এডিস মশার লার্ভা পাওয়া যাবে আমাদের প্রতিনিধিরা ধ্বংস করে দিয়ে আসবে। পাশাপাশি সন্মানিত নাগরিকদের প্রশিক্ষণ দিয়ে আসবে কিভাবে এডিস মশার বংশ ধ্বংস করতে হয়। প্রতিদিন ৩০টি বাসায় কমপক্ষে ১ হাজার ৭১০টি এডিস মশার লার্ভা ধ্বংস করবে। সেই হিসেবে এই ১৫ দিনে ২৫ হাজার এডিস মশার বংশ ধ্বংস করবে।

রোববার (২১ জুলাই) রাজধানীর কাঁঠাল বাগান এলাকার পদ্মা জেনারেল হাসপাতালের সামনে বিশেষ এই কর্মসূচির উদ্বোধনকালে মেয়র একথা বলেন। এরপর আশাপাশের কয়েকটি বাসায় গিয়ে এডিস মশার বংশ ধ্বংস করেন মেয়র। এসময় উপস্থিত ছিলেন- প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান।

মেয়র বলেন, এডিস মশা রাস্তা কিমবা ডোমার নোংড়া পানিতে জন্মে না। এডিস মশা বাসার ভেতরে ছাঁদের আঙিনায়, পরিত্যক্ত টায়ার বা পানি টাঙ্কিতে স্বচ্ছ পানিতে বংশ বিস্তার করে। ময়লা যুক্ত পানিতে বংশ বিস্তার করে না। তাই এডিস মশা ধ্বংসে জনগণের সচেতনা ও সর্তকতা রাখা সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন।

তিনি বলেন, আমাদের সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় মশা যাতে ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়তে না পারে সেজন্য সবার সহযোগিতা দরকার। এডিস মশার প্রাদুর্ভাব যাতে না বাড়ে সেজন্য নিজে সচেতন হউন অন্যকে সচেতন করুন। সকলের প্রচেষ্টায় বর্তমান বিরজমান পরিস্থিতি থেকে মুক্ত করে ডেঙ্গুমুক্ত শহর উপহার দিতে পারব।

মেয়র আরও বলেন, এরইমধ্যে আমাদের ৬৮টি ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল টিম কাজ করছে। এখন পর্যন্ত ৪৫০ স্থানে কাজ করে ২ হাজার ১৫৭ জন নাগরিকের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। বিনামূল্যে ওষুধ সরবরাহ করা হচ্ছে। এরপরও কোথাও ডেঙ্গুর অস্তিত্ব পেলে ডিএসসিসি’র হট লাইনে ফোন দিলে আমাদের লোক গিয়ে ধ্বংস করে দিয়ে আসবে।

আস/এসআইসু

Facebook Comments