বাংলাবান্ধা দিয়ে শিলিগুড়ি পর্যন্ত রেল যোগাযোগ হচ্ছে

আলোকিত সকাল ডেস্ক

রেলপথমন্ত্রী অ্যাডভোকেট নুরুল ইসলাম সুজন আশা প্রকাশ করে বলেছেন, আগামী এক বছরের মধ্যেই তেঁতুলিয়ার বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর দিয়ে ভারতের শিলিগুড়ি পর্যন্ত রেল যোগাযোগ স্থাপনের কাজ শুরু হবে। এতে এ বন্দর দিয়ে ব্যবসা-বাণিজ্য আরো গতিশীল হবে।

মন্ত্রী শনিবার (৮ জুন) দুপুরে পঞ্চগড় সরকারি অডিটরিয়ামে স্থানীয় চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজ (পিসিসিআই) আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, বাংলাবান্ধা স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে ব্যাপক পরিমাণে পাথর আমদানি হয়। এ পাথর দেশের বিভিন্ন স্থানে প্রতিদিন কয়েক শ ট্রাকে পৌঁছে দেওয়া হয়। এতে সড়কের ওপর চাপ বাড়ে। এ জন্য সড়কে চাপ কমাতে বাংলাবান্ধা থেকে রেলে পণ্য পরিবহনের পরিকল্পনা করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, রেল যোগাযোগব্যবস্থার সংস্কার ও আধুনিকায়ন ছাড়া সমন্বিত যোগাযোগব্যবস্থা গড়ে তোলা সম্ভব নয়। এ জন্য সরকার রেল যোগাযোগব্যবস্থার সংস্কার ও আধুনিকায়নে ব্যাপক কর্মপরিকল্পনা হাতে নিয়েছে। কিন্তু পূর্বের সরকারগুলো এ সেবা খাতের দিকে কোনো নজর দেয়নি।

মন্ত্রী আরও বলেন, বিএনপি-জামায়াত ১০ হাজার রেলকর্মীকে ছাঁটাই করে ও বিভিন্ন রেলপথ বন্ধ করে দিয়ে রেলব্যবস্থাকে ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে গিয়েছিল। বর্তমান সরকার রেলসেবা বৃদ্ধির মাধ্যমে রেলের প্রতি যাত্রীদের আস্থা ফিরিয়ে এনেছে।

মন্ত্রী ব্যবসায়ীদের শুধু মুনাফা নয়, দায়িত্ববোধ বিবেচনায় নিয়ে জনহিতকর কাজে সম্পৃক্ত হওয়ার আহবান জানান।

পঞ্চগড় চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি আব্দুল হান্নান শেখ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ও সহসভাপতি মেহেদী হাসান বাবলা অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন।

অনুষ্ঠানে মন্ত্রী ছাড়াও পঞ্চগড়-১ আসনের সংসদ সদস্য মজাহারুল হক প্রধান, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার সাদাত সম্রাট, পঞ্চগড় পৌর মেয়র তৌহিদুল ইসলাম ও বোদা পৌর চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট ওয়াহিদুজ্জামান সুজা, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম, তেঁতুলিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান কাজী মাহমুদুর রহমান ডাবলু, আটোয়ারী উপজেলা চেয়ারম্যান তৌহিদুল ইসলাম, বোদা উপজেলা চেয়ারম্যান ফারুক আলম টবি ও দেবীগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল মালেক চিশতীকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়।

আস/এসআইসু

Facebook Comments Box