বাংলাদেশ এখন চাল আমদানি করে না , সরকার ইতোমধ্যেই চাল রপ্তানি করার ব্যবস্থা গ্রহণ – বলেন তথ্যমন্ত্রী ড.হাছান মাহমুদ

বাংলাদেশে এখন ছেঁড়া কাপড়ে লোক দেখা যায় না, দেশে এখন আর খালি পায়ে লোক দেখা যায় না, বাংলাদেশে এখন গ্রামে কুঁড়েঘর খুঁজে পাওয়া যায় না।

শনিবার (২৭ জুলাই) চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলাধীন নূরজাহান ক্লাবের মাঠে উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ড.হাছান মাহমুদ।

উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও রাঙ্গুনীয়া উপজেলার চেয়ারম্যান খলিলুর রহমান চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও আওয়ামী লীগ নেতা ডা. মোহাম্মদ সেলিম ও আকতার হোসেন খাঁনের সঞ্চালনায় অনুষ্টিত সম্মলনের প্রথম অধিবেশনে উদ্বোধকের বক্তব্য রাখেন রাউজানের বারবার সফল রেলপথ মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় কমিটির সভাপতি ও চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এ বি এম ফজলে করিম চৌধুরী এমপি উপস্থিত ছিলেন।

ড.হাছান মাহমুদ বলেন, বিএনপি এখন দিশেহারা। আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়ন দেখে ও দেশের মানুষের ভালবাসা দেখে তাদের সহ্য হচ্ছে না। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন বাংলার মানুষকে আওয়ামীলীগ যে ডিজিটাল বাংলাদেশে রূপান্তর কথা বলেছেন তার পূরণের পথে দেশ। মন্ত্রী আরো বলেন, আকাশ থেকে এখন চট্টগ্রাম চেনা যায় না, ঢাকা শহর চেনা যায় না। দেশ এখন সত্যিকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ। দেশে এখন ১৪ কোটি মানুষের হাতে ১৫ কোটি সিম।

বাংলাদেশে এখন দুপুরে কিংবা সন্ধ্যার পর মা আমাকে বাসি ভাত দেন এই কথা শোনা যায় না। কারণ ইতোমধ্যে আমরা ক্ষুধামুক্ত বাংলাদেশ বিনির্মাণ করতে সক্ষম হয়েছি। বাংলাদেশ এখন চাল আমদানিকারক দেশ নয়, বাংলাদেশ এখন চাল রপ্তানিকারক দেশ। আমরা এখন প্রতিবছর দুই লক্ষ মেট্রিক টন খাদ্যশস্য রপ্তানি করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি। আমরা এখন ক্ষুধা মুক্ত দেশ। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যখন ১০ বছর আগে ক্ষমতা গ্রহণ করেন তখন ক্ষুধার হার ছিলো ৪০ শতাংশ। এটি এখন ২০ শতাংশে নেমে এসেছে।

আস/এসআইসু

Facebook Comments