বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতি আঁকছে খুদে শিল্পীরা

     ০৩ আগস্ট ২০১৯

শুক্রবার চট্টগ্রাম শিশু একাডেমিতে আয়োজিত চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতি আঁকছে খুদে শিল্পীরা । সামনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মুখাবয়ব, সেই চিরচেনা মুষ্টিবদ্ধ হাত। পেছনে বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা। গ্রামের সবুজ-শ্যামল প্রকৃতি, নৌকা, মেঠোপথ, শস্যক্ষেত। এসবের সংমিশ্রণে রংতুলির ক্যানভাসে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ব্যক্তিত্ব তুলে ধরার চেষ্টা করেছে খুদে শিল্পীরা।

শুক্রবার জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে চট্টগ্রাম শিশু অ্যাকাডেমিতে আয়োজিত চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়া প্রতিযোগীরা রংতুলির আঁচড়ে ফুটিয়ে তোলে জাতির জনককে। তাদের আঁকা ছবিতে বঙ্গবন্ধু ছাড়াও এসেছে শ্যামল গ্রাম, সবুজ প্রকৃতি, ফুল, প্রাণী, বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ জেলা ও নগর কমান্ড এ প্রতিযোগিতার আয়োজন করে।

আরেক আঁকিয়ের রংতুলিতে উঠে এসেছে সবুজ এক গ্রাম। সেই গ্রামের কিশোরীরা দলবেঁধে নদী তীরে হাঁটছে। গরুর পাল নিয়ে মাঠে যাচ্ছে রাখাল।

অন্য একটি ক্যানভাসে ফুটে ওঠে নদী তীরের এক গ্রাম। নদীতে পাল তুলে নৌকা চলছে। মাছ ধরছে জেলে। তীরে বেঁধে রাখা জেলেদের নৌকা। পশ্চিম দিগন্তে উঠেছে বিরাট এক সূর্য।

প্রতিযোগিতা শুরুর আগে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে পুলিশ সুপার নুরে আলম মিনা বলেন, চিত্রাঙ্কন শুধু সুন্দরের জন্য নয়, চিত্রের মাধ্যমে অনেক বক্তব্য প্রকাশ করা যায়।

‘চিত্র মেধা বিকাশের অন্যতম শক্তিশালী মাধ্যম। যুগে যুগে ছবি অনেক জাগরণ তৈরি করেছে, পাশাপাশি ইতিহাস-ঐতিহ্যকে উপস্থাপন করেছে। তাই চিত্রকে আঁকড়ে ধরে রাখতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, নতুন প্রজন্মের কাছে বঙ্গবন্ধুকে তুলে ধরতে হবে। এজন্য চিত্রের বিকাশ ঘটাতে হবে। মুক্তিযোদ্ধারা বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে অনেক বেশি জানেন এবং তারাই বঙ্গবন্ধুর আসল সৈনিক। এজন্য তাদের এগিয়ে আসতে হবে।

বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ জেলা কমান্ডের সভাপতি মো. সাহাবউদ্দিনের সভাপতিত্বে আলোচনায় সভায় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিলের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল মতিন চৌধুরী, জেলা ডেপুটি কমান্ডার একেএম সরোয়ার কামাল, চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী ফরিদ, জেলা প্রচার কমান্ডার মো. নাসির উদ্দিন, দপ্তর কমান্ডার একেএম আলাউদ্দিন প্রমুখ।

Facebook Comments