প্রিয়া সাহাসহ সকল সাম্প্রদায়িক অপকর্মের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে রাবিতে মানববন্ধন

রাবি প্রতিনিধি

সম্প্রতি প্রিয়া সাহার সাম্প্রদায়িক বক্তব্য ও সকল শক্তির অপকর্মের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে মানববন্ধন করেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শিক্ষার্থীরা। মানববন্ধনে দেশে চলমান শিশু ও নারী ধর্ষণের ঘটনারও প্রতিবাদ জানায় তারা। বুধবার বেলা ১১ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্যারিস রোডে সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলন রাবি শাখার আয়োজনে এ মাবনবন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে কে এম আব্দুল্লাহ আল আমিন রাব্বি বলেন, কিছুদিন আগে প্রিয়া সাহা সাম্প্রদায়িকতার যে বক্তব্য দিয়েছেন তা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন। বাংলাদেশ অসাম্প্রদায়িক সমৃদ্ধশালী দেশ। পৃথিবীর কোন দেশে এমন সম্প্রীতির দৃষ্টান্ত দেখা যায় না। নারী ও শিশু ধর্ষণকারী, সন্ত্রাসী হামলাকারী এরা সমাজ, রাষ্ট্র ও দেশের শত্রু। তারা যে দলেরই হোক না কেন তাদের শাস্তির আওতায় আনতে হবে। দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে যাতে কেউ অপরাধ করার সাহস না পায়।

মানববন্ধনে সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক কে এম আব্দুল গনি বলেন, সম্প্রতি প্রিয়া সাহা দেশের শান্তি নষ্ট করার জন্য, নিজ স্বার্থ হাসিলের জন্য সুস্থ মস্তিষ্কে উদ্দেশ্য প্রণোদিত ভাবে এমন বক্তব্য দিয়েছেন। তিনি আরও বলেন, বিকৃত মস্তিষ্ক ধর্ষণের জন্য দায়ী। শিশু ও নারী ধর্ষণকারীদের বিরুদ্ধে তীব্র আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।

আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী ইভা বলেন, আমাদের দেশে বিচারহীনতার যে অপসাংস্কৃতি চালু হয়েছে তা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। প্রত্যেক নারীকে উচিত কে নিজ নিজ জায়গা থেকে সচেতন হওয়া। দল, মত নির্বিশেষে সম্মিলিত আন্দোলন গড়ে তোলা। তাছাড়া রাষ্ট্রে ধর্ষণের বিরুদ্ধে যে শাস্তির বিধান রয়েছে তার যথাযথ প্রয়োগ করা।

আন্তজার্তিক সম্পর্ক বিভাগের শিক্ষার্থী মাহমুদুল হাসানের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে আরও বক্তব্য দেন সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলনের সভাপতি সোহরাব হোসেন, সহ-সভাপতি আরমানুজ্জামান, সদস্য মুশফিকুর রহমান, প্রিজন, সোহাগ হোসেন, মাহমুদ সাকি প্রমুখ। মানববন্ধনে রাবি বিতর্ক সংগঠন গ্রুপ অফ লিবারেল ডিবেটার্স ( গোল্ড বাংলাদেশ) ও রাবি পঞ্চগড় জেলা সমিতি একাত্বতা প্রকাশ করে। মানববন্ধনে প্রায় শতাধিক শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত গত ১৬ জুলাই ধর্মীয় নিপীড়নের শিকার ২৭ ব্যক্তির সঙ্গে বৈঠক করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। সেখানে ১৬ দেশের প্রতিনিধি অংশ নেন। বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক প্রিয়া সাহাও প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে আলাপ কালে বাংলাদেশের সাম্প্রদায়িকতার কথা বলেন।

আস/এসআইসু

Facebook Comments