পিতা-মাতা কখনও সন্তানকে ঠকায় না

আলোকিত সকাল ডেস্ক

রাজবাড়ীর পাংশা মডেল থানার আয়োজনে শনিবার (১৮ মে) সকাল ১১টায় উপজেলার কসবামাজাইল ইউনিয়নের কসবামাজাইল এ,এইচ, উচ্চ বিদ্যালয়ে বাল্যবিবাহ রোধ, ইভটিজিং প্রতিরোধ, জঙ্গিবাদ দমন, সন্ত্রাস দমন, মাদকের কুফল, নারী ও শিশু নির্যাতন রোধ, যৌতুক নিরোধ ও সামাজিক মূল্যবোধ বৃদ্ধির লক্ষ্যে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মতবিনিময় সভায় সহকারী পুলিশ সুপার (পাংশা সার্কেল) মোঃ লাবীব আব্দুল্লাহ’র সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার আসমা সিদ্দিকা মিলি বিপিএম, পিপিএম।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, আমরা যখন পড়াশোনা করেছি তখন ছেলেমেয়েরা ভাইবোনের মত ছিল। স্কুলে মেয়েদের নিরাপত্তা স্কুলের ছেলেরাই দিত। আমাদের একটি সমাজ আছে সংস্কৃতি আছে। সেখানে সকলেই সবার বন্ধু। কিন্তু আজকাল একটি ছোট ছেলে একটি মেয়েকে ইভটিজিং করে। বর্তমান সমাজের মানুষ একটি শিশুকে ধর্ষণ করছে। তাহলে সেকি কোন মানুষের মত কাজ করছে। সে মানুষ হয়ে পশুর মত আচরণ করছে। এখন থেকে বাবা-মায়েদের সন্তানকে শিক্ষা দিতে হবে। কারণ আপনি সন্তানকে যে শিক্ষা দিবেন, আপনার সন্তান সেভাবেই বড় হবে। আজকের ছেলেমেয়েরা বাবা-মায়ের শাসন মানে না। কিন্তু কেন? কারণ অভিভাবকরা তাদেরকে ঠিকমত পরিচর্যা করতে পারেনা। অভিভাবকদের উদ্দেশ্যে বলছি আপনি আপনার অপরাধ থেকে দূরে থাকুন, আপনার সন্তানকে অপরাধ থেকে দূরে রাখুন। আপনারা ছেলেমেয়েদের হাতে স্মার্টফোন দিবেন না। আজকের সন্তান আগামী দিনের ভবিষ্যত। তাই আপনাদেরকে সন্তানের প্রতি এখন থেকেই খেয়াল রাখতে। সে কোন অপকর্মে লিপ্ত হচ্ছে কিনা, মাদক সেবন করছে কিনা, স্কুলে নিয়মিত যায় কিনা, স্কুলে কোন মেয়ের প্রতি অশালীন আচরণ করছে কিনা। তাহলেই আমাদের ছেলেমেয়েরা সুশিক্ষায় শিক্ষিত হবে।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আমরা তোমাদেরকে সোনার সন্তান হিসেবে দেখতে চাই, সোনার মানুষ হিসেবে দেখতে চাই। তোমাদেরকে স্বপ্ন দেখতে হবে জীবনে উন্নতির জন্য। তোমাদের আকাঙ্ক্ষা থাকতে হবে মানুষের মত মানুষ হওয়ার জন্য। তোমাদের সাজ-সজ্জায়, পোশাকে পরিবর্তন আনতে হবে। শিক্ষকদের পিতৃতুল্য মনে করতে হবে। শিক্ষক ও গুরুজনদের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হতে হবে। তোমরা পিতা মাতাকে কষ্ট দিওনা। পিতা-মাতা কখনও সন্তানকে ঠকায় না। তোমরা পিতা-মাতার সাথে কখনও খারাপ ব্যবহার করো না। তোমরা নিজেরা কোন ভুল পথে পা বাড়াবে না। আমাদের প্রতিবেশীর ভাল-মন্দ দেখাও আমাদের কর্তব্য। বাবা-মা ও শিক্ষকদেরকে শিক্ষার্থীদের মাঝে স্বপ্নের বীজ বুনে দিতে হবে।

এ সময় তিনি কসবামাজাইলবাসীর উদ্দেশ্যে বলেন, আজ এখানে আমি একটি ম্যাসেজ দিতে চাই। সেটা হলো আপনারা দিনে-রাতে এখানে গুলি চালান। আপনাদের কাছে কত রাউন্ড গুলি আছে তা আমি দেখতে চাই। আমার কাছে কত রাউন্ড গুলি আছে সেটাও আপনাদের দেখাতে চাই। আমি জনপ্রতিনিধিদের উদ্দেশ্যে বলতে চাই, আপনারা নির্বাচনে জেতার জন্য বাহিনী গঠন করে প্রতিপক্ষকে আঘাত করে ঠকানোর জন্য চেষ্টা করবেন না। এখানে কোন বাহিনী গঠন করার চেষ্টা করবেন না। কোন অস্ত্রধারী এখানে থাকবে না। আমরা চাইনা এখানে কোন অস্ত্রধারী তৈরী হোক। যারা অপরাধের পথ বেছে নেবে আমরা তাদেরকে কঠোর হাতে দমন করব। যারা নির্বাচনে জিততে এসব করতে চান তারা এসব ভুলে যান। নির্বাচনে জিততে হলে জনগণের ভোটে জিততে হবে। আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী একটি শুদ্ধিকরণ কর্মসূচী গ্রহণ করেছেন। তাই কোনরকম বাহিনী গঠন করে এখানকার শান্তিপ্রিয় মানুষের চোখের ঘুম হারাম করবেন না। তাহলে পুলিশও আপনাদের চোখের ঘুম হারাম করে ছাড়বে। আপনারা এ সমস্ত অস্ত্রধারীদের চিহ্নিত করে পুলিশকে সঠিক খবর দিন। আপনার তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

এ সময় তিনি ছাত্রদের মাদক ও ইভটিজিং থেকে বিরত থাকার শপথ করান। ছাত্রীদেরকে শপথ পাঠ করান, আমরা লেখাপড়া শিখব, বাবা-মায়ের কথা শুনব, গুরুজনকে সম্মান করব, সমাজের অন্যায়ের বিরুদ্ধে থাকব, মানুষের মত মানুষ হব। পরিশেষে তিনি বলেন, আপনারা ভাল কাজের সহযোগিতা করবেন, ভাল কাজের চর্চা করবেন। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, অবসরপ্রাপ্ত কাস্টম কর্মকর্তা ও নাদির হোসেন উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের সভাপতি রোকনুজ্জামান মিয়া। এসময় উপস্থিত ছিলেন, পাংশা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আহসান উল্লাহ্, রাজবাড়ী ডিবি পুলিশের ওসি কামাল হোসেন ভূইয়া, কসবামাজাইল ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ কামরুজ্জামান খান, কসবামাজাইল ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ শামসুদ্দিন মন্ডল, ইউনিয়ন আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ মশিউর রহমান (পিল্টু জোয়াদ্দার), কসবামাজাইল এ,এইচ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল্লাহ-আল মামুন, নাদির হোসেন উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিনোদ কুমার বিশ্বাস, মুক্তিযোদ্ধা মোঃ সবেদ আলী জোয়াদ্দার, ইউপি সদস্য মোঃ জয়নাল আবেদীন, মোঃ খায়রুল ইসলাম, ভুট্টো জোয়াদ্দার, মুন্নাফ মন্ডল, রহমত আলী, বিশিষ্ট শিল্পপতি রাকিবুল ইসলাম বিশ্বাস, মারুফ খান সহ কসবামাজাইল এ, এইচ,উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকবৃন্দ।

আস/এসআইসু

Facebook Comments