পত্নীতলায় সবজির বাজারে আগুন, বিপাকে নিম্ন আয়ের মানুষ

মাসুদ রানা, পত্নীতলা (নওগাঁ) প্রতিনিধি

নওগাঁর পত্নীতলা উপজেলার বিভিন্ন্ হাট বাজারে এই ভরা মৌসুমে শাক সবজির বাজার লাগামহীন ঘোড়ার মত বেড়েই চলছে। যার কারনে অব্যাহত দাম বাড়ার কারনে সাধারন মানুষের নাভিশ্বাস উঠেছে। সবচেয়ে বিপাকে পড়েছে নিম্ন ও মধ্য আয়ের মানুষ। দৈনন্দিন বাজারে তাদের গুনতে হচ্ছে উচ্চ মুল্য। বিশেষ করে যারা দিন আনে দিন খায় তাদের অবস্থা আরও করুন। একদিকে চালের দাম কম হলেও অন্য দিকে সবজির বাজারে আগুন । আর এতে করে খুব সমস্যার মধ্যে পড়তে হচ্ছে এ নিম্ন আয়ের মানুষ গুলোকে। এদিকে উপজেলার বিভিন্ন হাট ও নজিপুর কাচা বাজার ঘুরে দেখা গেছে, এক সপ্তাহের ব্যবধানে সব সবজির দাম বৃদ্ধি পেয়েছে ।

বর্তমান বাজারে আলু ২৫টাকা কেজি, বেগুন ৬০টাকা, বই কচু ৫০টাকা, পিয়াজ ৪০টাকা, কাঁচা মরিচ ১২০টাকা, শসা ৮০ টাকা, কাঁকরুল ২৫ থেকে ৩০টাকা, কাঁচা কলা ২০ থেকে ২৫ টাকা, পেঁপে ২০টাকা, পটল ৩০থেকে ৪০ টাকা। লাল শাক ৩০টাকা, পুই শাক ২৫ টাকা, , করলা ৮০টাকা, কচুর লতি ৪০টাকা দরে বিক্রয় হচ্ছে। এ দিকে

বিভিন্ন হাটের সবজি বিক্রেতারা জানান, তারা যেসব জায়গা থেকে কাচাঁ সবজি পাইকারী দরে ক্রয় করে এনে এখানে খুচরা বিক্রয় করত সম্প্রতি সেসব এলাকায় বন্যা ও কয়েক দিনের বৃষ্টিপাতে গাছ পঁচে মরে গেছে। ফলে তারা তাদের চাহিদা মত সবজি ক্রয় করতে পারছে না। যতটুকু কিনতে পারছে সে গুলোও কিনতে হচ্ছে চড়া দামে । আর তাই পাইকারি বাজারে দাম বাড়ার কারনে তার প্রভাব পড়ছে খুচরা বাজারে। তবে আবহাওয়া ভালো থাকলে চাষীরা নতুন সবজি উৎপাদন করলে সবজির দাম কমতে থাকবে বলে মনে করেন ।

নজিপুর বাসষ্ট্যান্ড কাচা বাজারের ব্যবসায়ী সাইদুর রহমান বলেন বেশী দামে কিনতে হচ্ছে তাই বেশী দামে বিক্রি করছি ,আমদানি নেই যার কারনে বাজার ব্যপক উর্ধগতি।পুইয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নাসিম আহমেদ ইমন কাঁটাবাড়ী হাটে বাজার করতে আসে তিনি জানান শহরের চেয়ে সব সময় এই বাজারে সবজির দাম কম থাকে তবে আজ দেখছি সব সবজি দিগুন দামে বিক্রি হচ্ছে ।
নজিপুর বাসষ্ট্যান্ড বণিক কমিটির সভাপতি মো: শহিদুল আলম বেন্টু বলেন গত সপ্তাহে একটানা বর্ষা দেশের বিভিন্ন এলাকায় বন্যা থাকার কারনে শাকসবজি সহ বেগুন কাঁচা মরিচ পচে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। তবে বৃষ্টি বাদল কমে গেলে গাছ গুলির পচন রোধ হলে আবার বাজার স্বাভাবিক হতে পারে।

আস/এসআইসু

Facebook Comments