নয়ন বন্ডের মায়ের দাবির প্রেক্ষিতে যা বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

আলোকিত সকাল ডেস্ক

দেশে কোন বিচার বহিভূর্ত হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেনি। এটা এক ধরণের প্রপাগান্ডা বলছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। আপনারা যেটাকে বিচার বহিভূর্ত হত্যাকাণ্ড বা ক্রসফায়ার বলছেন? তারা (অপরাধী) সকলেই আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে চ্যালেঞ্চ জানিয়েছেন এবং দুই পক্ষের সংঘষের মাঝেই তারা নিহত হয়েছেন।

সম্প্রতি দেশের একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলের টকশো অনুষ্ঠানে সাংবাদিকের করা এক প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

বহুল আলোচিত বরগুনার রিফাত শরীত হত্যাকাণ্ডের প্রধান আসামী নয়ন বন্ডের মায়ের দাবি- ছেলেটা অপরাধী হলে আইনের হাতে তুলে দিতে পারত। তার বিচার হতো। আদালত যে শাস্তি দিত তা সে ভোগ করত কিন্তু তাকে ক্রসফায়ারের নামে মেরে ফেলল। কেন তাকে মেরে ফেলা হল। সাংবাদিক মাসুম বিল্লাহ নয়ন বন্ডসহ অসংখ্য ভিকটিমের পরিবারের সদস্যদের এমন দাবি উল্লেখ করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এটা সম্পূর্ণ মিথ্যা কথা। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী কখনও বিচার বহিভূর্ত হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটায়নি। আমি সরকারের প্রতিনিধি হিসেবে বলতে পারি সরকার কখনও বিচার বহিভূর্ত হত্যাকাণ্ডকে সমর্থন করে না। এটা এক ধরনের প্রপাগান্ডা সরকারের প্রতি। মূলত বর্হিবিশ্বে সরকারে ভাবমূর্তি সংকটে ফেলানোর জন্যই এমন মিথ্যাচার।

এসময় সাংবাদিক মাসুম বিল্লাহ বলেন, ইতোমধ্যে যে সকল ক্রসফায়ারের ঘটনা ঘটেছে সরাদেশব্যাপী, প্রত্যেকটি ঘটনার মোটিভ অভিন্ন এবং হাইকোর্ট বলছে বিচার বহিভূর্ত হত্যাকাণ্ড তারা পছন্দ করেন না। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা গতানুগতিক ভাষায় কথা বলেছেন, অপরাধীকে সঙ্গে নিয়ে বের হওয়ার পর, তাকে ছিনিয়ে নেয়ার উদ্দেশ্যে ওৎপেতে থাকা তার বাহিনীর সদস্যদের সঙ্গে গোলাগুলির এক পর্যায়ে তার (অপরাধী) মৃত্যু হয়। এতে কি সন্দেহ হওয়ার যথেষ্ট যুক্তিযুক্ত কারণ রয়েছে না?

এর জবাবের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এভাবে যদি আপনারা (সাংবাদিকরা) বলেন, তবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ওপর অবিচার করা হবে। বহু ঘটনায় আমাদের আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য আহত ও নিহত হয়েছেন। এটা কিন্তু দেশবাসী দেখেছে। এসময় সাংবাদিক মাসুম বিল্লাহ ক্ষমা চেয়ে বলেন, পুরো দেশবাসী কিন্তু ভিন্ন কথা বলছে এবং অনেক ক্ষেত্রে জনগণ ক্রসফায়ারকে সমর্থন করছে। এতে করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী উৎসাহী হয়ে পড়েছে। এটা কি এক সময় শাসন ব্যবস্থার জন্য ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়াবে না?

এর জবাবে মন্ত্রী পুনরায় একই কথা বলেন, সরকার বিচার বহিভূর্ত হত্যাকাণ্ডকে সমর্থন করে না। বর্তমান সরকার বিচার বিভাগকে সম্পূর্ণ স্বাধীন করে দিয়েছে। প্রতিটি হত্যাকান্ডের পর (ক্রসফায়ার) ম্যাজিস্ট্রিট তদন্ত করে রিপোর্ট প্রধান করেন। এখানে কোন ধরনের অন্যায় করার সুযোগ নেই। এটা আপনার জানেন। আমরা আইনের শাসনের প্রতি সম্পূর্ণ শ্রদ্ধাশীল। বিচারের বাইরে সরকার কোন হত্যাকাণ্ডকেই সমর্থন করছে না। এটা সম্পূর্ণ ভুল ধারণা আপনাদের।

আস/এসআইসু

Facebook Comments