নায়িকা সংকটে আশার আলো যারা

আলোকিত সকাল ডেস্ক

ঢাকাই চলচ্চিত্রের নায়িকা সংকট কাটাতে তৈরি আছেন বেশকিছু অভিনেত্রী। তারাই এখন নির্মাতাদের আশার আলো দেখাচ্ছেন। বর্তমানে আলোচিত নায়িকা পরীমনি, ববি, বুবলী, মাহি, আঁচল, জয়া, মৌসুমী হামিদের পাশাপাশি তারাও ব্যস্ত হচ্ছেন। নির্মাতারা যথাযথভাবে তাদের কাজে ব্যবহার করলে তারাও একদিন শীর্ষ স্থান দখল নিতে পারবে। তাদের মধ্যে সেই প্রতিভা এবং যোগ্যতা আছেন বলে মনে করেন অনেকে। তাইতো তারা এখন অপেক্ষায় আছেন একটা সুযোগের। তাদের নিয়েই তৈরি হয়েছে এই প্রতিবেদন।
তানিয়া বৃষ্টি

তানিয়া বৃষ্টি
তানিয়া বৃষ্টি ২০১২ সালে ‘ভিট চ্যানেল আই টপ মডেল’ দ্বিতীয় রানারআপের পুরস্কার অর্জন করেন। ২০১৫ সালে ‘ঘাসফুল’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে তার বড় পর্দায় অভিষেক হয়। লাভার নাম্বার ওয়ান, আয়না সুন্দরী, শিরি ফরহাদ, যদি তুমি জানতে, বালক, দলিল, বীরঙ্গনা সখিনা, দরজার ওপাশে, গোয়েন্দাগিরি, অবলা নারী চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। বর্তমানে তিনি আরো কয়েকটি চলচ্চিত্রে অভিনয়ের ব্যাপারে নির্মাতাদের সাথে আলোচনায় আছেন।

মৌ খান

মডেল হিসেবে শোবিজে কাজ শুরু করে বর্তমানে চলচ্চিত্রে নিয়মিত অভিনয় করছেন ঢালিউডের নতুন মুখ মৌ খান। এরইমধ্যে তিনটি চলচ্চিত্রের কাজ শেষ করেছেন তিনি। এরমধ্যে মুক্তি পেয়েছে তার অভিনীত চলচ্চিত্র ‘প্রতিশোধের আগুন’। এ পর্যন্ত তিনি তিনটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। এগুলো হচ্ছে সুজন বড়ুয়ার ‘বান্ধব’, শফিক হাসানের ‘বাহাদুরি’ এবং মোহাম্মদ আসলামের ‘প্রতিশোধের আগুন’। এরমধ্যে ‘প্রতিশোধের আগুন’ মুক্তি পেয়ে ভালো ব্যবসা করে। মৌ খান বর্তমানে আরো কয়েকটি চলচ্চিত্রের শুটিং নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন।

নিঝুম রুবিনা

২০০৮ সালে গ্রামীনফোনের বিজ্ঞাপনচিত্রে মডেলিং করে তার কর্মজীবন শুরু হয়। এরপরও আরো অনেক বিজ্ঞাপনচিত্রে তিনি অংশগ্রহন করেছেন। ২০১৩ সালে তিনি চলচ্চিত্রে পর্দাপন করেন জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত ‘এর বেশি ভালোবাসা যায় না’ চলচ্চিত্রে উঠতি অভিনেতা সায়মন সাদিকের সঙ্গে অভিনয়ের মাধ্যমে। এটি ছিল তার অভিনীত প্রথম সফল বাণিজ্যিক চলচ্চিত্র। ২০১৪ সালে মুক্তি পায় আবুল কালাম আজাদ পরিচালিত ‘অনেক সাধনার পরে’।
২০১৬ সালে মুক্তি পায় রোমান্টিক চলচ্চিত্র ‘অস্তিত্ব’, যেটির প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেন আরেফিন শুভ এবং নুসরাত ইমরোজ তিশা। তিনি ‘কিস্তির জ্বালা’ নামে অন্য আরেকটি চলচ্চিত্রেও অভিনয় করেছেন নূর মোহাম্মদ মনির পরিচালনায়। এছাড়া নিঝুম রুবিনা অভিনীত অন্যান্য চলচ্চিত্রের মধ্যে রয়েছে মেঘকন্যা, জান রে, অসমাপ্ত প্রেমের গল্প ইত্যাদি।

মারিয়া চৌধুরী
শিশুকিশোর বিষয়ক অনুষ্ঠান ‘শাপলা শালুক’ এবং ‘আনন্দ ভূবন’ এর উপস্থাপিকা হিসেবে ছুট পর্দায় হাজির হন মারিয়া চৌধুরী। কাজী হায়াতের ‘ইভটিজিং’ চলচ্চিত্রটির মাধ্যমে বড়পর্দায় তার অভিষেক হয়। ছোট পর্দা থেকে রূপালী পর্দায় অভিনয় শুরু করেন তিনি। এরপর সোহানুর রহমান সোহানের ‘অবলা নারী’ ও ‘ওয়াও বেবি ওয়াও’ চলচ্চিত্রের প্রধান চরিত্রে অভিনয় করছেন। তার অভিনীত আরেকটি চলচ্চিত্র ‘অসম প্রেম’। বর্তমানে আরো দুটি চলচ্চিত্রে তিনি অভিনয় করছেন। সেগুলোর নাম নির্ধারণ হয়নি

সানাই
মডেল হিসেবে কাজ শুরু করা সানাই মাহবুব এবার চলচ্চিত্রে অভিনয় করছেন। মোস্তাফিজুর রহমান বাবুর ‘প্রতিশোধ’ ও ‘প্রতীক্ষা’ শিরোনামের দুটি চলচ্চিত্রে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন। এগুলোতে ভালো অভিনয় করে বড় পর্দায় নিয়মিত হবেন তিনি। তবে এগুলো ছাড়াও বর্তমানে গাজী মাহবুবের একটি চলচ্চিত্রে অভিনয়ের ব্যাপারে তার সঙ্গে কথা হচ্ছে।

তানহা মৌমাছি
জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত ‘অনেক দামে কেনা’ চলচ্চিত্রে ডিপজলের নায়িকা হিসেবে অভিনয় করেন তানহা মৌমাছি। মূলত এই চলচ্চিত্রে কাজ করেই আলোচনায় এসেছেন তিনি। সেই সঙ্গে প্রতিষ্ঠা করেছেন প্রযোজনা সংস্থা ‘মৌমাছি প্রোডাকশন’। নিজের প্রযোজনা সংস্থা থেকেই নির্মাণ করেন ‘এই গল্পে ভালোবাসা নেই’। ‘বয়ফ্রেন্ড’ তার প্রযোজিত দ্বিতীয় চলচ্চিত্র। বর্তমানে প্রযোজনার বাইরে গিয়েও তিনি আরো কয়েকটি চলচ্চিত্রে অভিনয়ের চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন। যেগুলোর কাজ খুব শিগগিরই শুরু হবে বলে তিনি নিজেই জানান।

প্রিয়ন্তি পরী
নৃত্যশিল্পী প্রিয়াঙ্কা পরী বড় পর্দায় নাম লেখালেন প্রিয়ন্তি পরী হিসেবে। মোস্তাফিজুর রহমান মানিক পরিচালিত ‘চুপি চুপি প্রেম’ চলচ্চিত্রে প্রিয়াঙ্কাকে কাস্ট করে নাম পাল্টে দেন প্রিয়ন্তি পরী। এখন তিনি নতুন চলচ্চিত্র ‘ভালোবাসার বৃষ্টি ঝরে’তে কাজ করার অপেক্ষায় আছেন। সেই সাথে কথা হচ্ছে আরো কয়েকজন নির্মতার সঙ্গেও।

আইরিন
মডেল এবং অভিনেত্রী আইরিন সুলতানার চলচ্চিত্রে ক্যারিয়ার শুরু দেবাশীস বিশ্বাসের ‘ভালোবাসা জিন্দাবাদ’র মাধ্যমে। এই চলচ্চিত্রে অভিনয় করে আইরিন দর্শকের মন জয় করেন। এরপর তিনি তেমন বেশি কাজ করেননি। তবে যেগুলো করেছেন সেগুলোতে খুব ভালোভাবে গল্প ও নিজের চরিত্রটা বেছে নিয়েছেন। তার অভিনীত অন্যান্য চলচ্চিত্রের মধ্যে রয়েছে- ‘ইউটার্ন’, ‘ছেলেটি আবোল তাবোল মেয়েটি পাগল পাগল’। এগুলো ইতিমধ্যে মুক্তি পেয়েছে। অভিনয় করছেন সুস্ময় সুমন পরিচালিত ‘তোকে হেব্বি লাগছে’, ‘এই তুমি সেই তুমি’, ‘এক পৃথিবী প্রেম’, ‘টাইম মেশিন’সহ আরও বেশকিছু চলচ্চিত্রে।

অরিন
লাক্স তারকা অরিন নাটক ও বিজ্ঞাপনে কাজ করার পর চলচ্চিত্রে আসেন কাজী হায়াৎ পরিচালিত ‘ছিন্নমূল’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে। এরপর তিনি চুক্তিবদ্ধ হন ‘আমার সিদ্ধান্ত’, ‘ভয়ংকর গোলমাল’, ‘অসম প্রেম’, ‘রংবাজি’ প্রভৃতি চলচ্চিত্রে। এরপর নেহাল দত্তের ‘অপরাজেয়’এর মাধ্যমে টালিগঞ্জের চলচ্চিত্রে নাম লেখান তিনি। পরপর অভিনয় করেন মহুয়া চক্রবর্তীর ‘আমার ভয়’ ও ‘শর্টকাট’ নামে আরেকটি চলচ্চিত্রে।
অরিন বর্তমানে কাজ করছেন মলয় চক্রবর্তীর ‘উল্কী’ চলচ্চিত্রে। আগামী ১০ আগস্ট বাংলাদেশের প্রেক্ষাগৃহে অরিন অভিনীত এবং এ.আর মুকুল নেত্রবাদী পরিচালিত ‘ফিফটি ফিফটি লাভ’ চলচ্চিত্রটি মুক্তি পাবে। এতে তার বিপরীতে অভিনয় করেছেন শাহরিয়াজ।

পূজা চেরী
পূজা চেরী একজন মডেল ও অভিনেত্রী। মডেলিং ও শিশুশিল্পী হিসেবে তার কর্মজীবন শুরু হয়। শিশুশিল্পী হিসেবে কয়েকটি চলচ্চিত্রে অভিনয়ের পর ২০১৮ সালে ‘নূর জাহান’ চলচ্চিত্র দিয়ে তার বড় পর্দায় অভিষেক ঘটে। পরপর তিনি ব্যবসাসফল ‘পোড়ামন ২’ ও ‘দহন’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। এর আগে ‘অগ্নি’ চলচ্চিত্রে মাহির ছোটবেলার চরিত্র ও ‘বাদশা’য় জিতের বোনের ভূমিকায় অভিনয় করেন পূজা।
অহনা

অহনা
ছোট পর্দার পরিচিত মুখ অহনা এখন অভিনয় করছেন বড় পর্দায়ও। অহনা অভিনীত প্রথম চলচ্চিত্র ‘চাকরের প্রেম’। দ্বিতীয়টি ‘দুই পৃথিবী’। এফআই মানিক পরিচালিত এতে অহনার সঙ্গে অভিনয় করেছেন শাকিব খান ও অপু বিশ্বাস। পিএ কাজলের ‘চোখের দেখা’ চলচ্চিত্রেও কাজ করেছেন তিনি। আরো কয়েকটি চলচ্চিত্রে অভিনয়ের ব্যাপারে কথা চলছে নির্মাতাদের সাথে।

শিরিন শীলা
‘হিটম্যান’ দিয়ে চলচ্চিত্রে অভিষেক ঘটে শিরিন শিলার। এরপর ক্ষণিকের ভালোবাসা, মন জানে না মনের ঠিকানা, মন দিয়ে মন পেয়েছি, মন নিয়ে লুকোচুরি, এক মিনিট, হৃদয়ছোঁয়া ভালোবাসাসহ অনেক চলচ্চিত্রে কাজ করেন শিলা। বর্তমানে চলচ্চিত্র অভিনয়েই ব্যস্ত সময় পার করছেন তিনি।

তানহা তাসনিয়া
চলচ্চিত্রে তানহা তাসনিয়া নাম লিখিয়েছেন রফিক সিকদারের ‘ভোলা তো যায় না তারে’র মাধ্যমে। বর্তমানে বেশ কিছু চলচ্চিত্রে তার কাজের কথা চলছে। ২০১৬ সালে তার অভিনীত আরেকটি চলচ্চিত্র ‘ধূমকেতু’ মুক্তি পায়। এতে তিনি শাকিব খানের বিপরীতে অভিনয় করেন। ২০১৮ সালে তানহা তাসনিয়া অভিনীত চলচ্চিত্র ‘ভালো থেকো’ মুক্তি পায়। চলচ্চিত্রটিতে তিনি অভিনয় করেছিলেন আরেফিন শুভর বিপরীতে। তিনি আরো কয়েকটি চলচ্চিত্রে চুক্তিবদ্ধ আছেন যেগুলোর কাজ শুরু হবে অচিরেই।

অধরা খান
অধরা খান সম্প্রতি কাজ করছেন সৈয়দ অহিদুজ্জামান ডায়মন্ড পরিচালিত ‘রোহিঙ্গা’ চলচ্চিত্রে। এর আগে তিনি ‘পাগলের মতো ভালোবাসি’ ও ‘মাতাল’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। এতে অধরার সাথে অভিনয় করেছিলেন চিত্রনায়ক সাইমন সাদিক। ইস্পাহানি আরিফ জাহান পরিচালিত ‘নায়ক’ এ ছিলেন বাপ্পী চৌধুরী। নতুন সিনেমায় অভিনয় শুরু করতে যাচ্ছেন অধরা খান। এর নাম ‘ড্রিম গার্ল’। এটি পরিচালনা করছেন ইস্পাহানি আরিফ জাহান। সম্প্রতি এফডিসিতে শুভ মহরতের মধ্য দিয়ে কাজ শুরু হয়।

পুষ্পিতা পপি
পুষ্পিতা পপি নায়িকা হয়েছেন ‘বিধ্বস্ত’ চলচ্চিত্রে। মোস্তাফিজুর রহমান বাবু পরিচালিত এই চলচ্চিত্রে পুষ্পিতার বিপরীতে নায়ক হিসেবে রয়েছেন কাজী মারুফ। এর গল্প লিখেছেন পরিচালক কাজী হায়াৎ। চলচ্চিত্রশিল্পে আসার আগে তিনি অভিনেত্রী হওয়ার স্বপ্ন দেখেননি। বন্ধুর জন্মদিন অনুষ্ঠানে অংশ নিতে গিয়ে একটি রেস্তোরাঁতে চলচ্চিত্র পরিচালক মনতাজুর রহমান আকবরের সাথে তার দেখা হয়। পরিচয় সূত্রে তাকে তার নতুন চলচ্চিত্রে অভিনয় করার প্রস্তাব দেন। পুষ্পিতা সেই প্রস্তাবটি গ্রহণ করেন এবং তার প্রথম চলচ্চিত্র ‘তোমাকে ভালোবেসে আমি দিওয়ানা’। এটি এখনো নির্মাণাধীন। বর্তমানে অভিনয় করেছেন পাংকু জামাই, ধূসর কুয়াসা, আগে যদি জানতাম তুই হবি পর ইত্যাদি।

সারা জেরিন
জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত ‘জ্বী হুজুর’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে কাজ শুরু করেন সারা জেরিন। এরপর তার অভিনীত ‘রোমিও’, ‘অন্যরকম ভালোবাসা’, ‘তোমার জন্য মন কাঁদে’ নামের চলচ্চিত্রগুলো মুক্তি পায়। ২০১৬ সালের পর বিরতি টানেন সারা জেরিন। মাঝে প্রায় দুই বছর কাজ করেননি তিনি। বর্তমানে রাজু চৌধুরীর ‘সাহসী সাংবাদিক’ এবং রুবেল মাহমুদের পরিচালনায় ‘নিশ্চুপ ভালোবাসা’ নামের দুটি চলচ্চিত্রে কাজ করছেন তিনি। এরমধ্যে ‘সাহসী সাংবাদিক’ এর নাম ভূমিকায় আর ‘নিশ্চুপ ভালোবাসা’য় এক চেয়ারম্যানের মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করছেন। এছাড়া আরো কয়েকটি চলচ্চিত্রের কথা হচ্ছে তার সঙ্গে নির্মাতাদের।

অন্যান্য
বর্তমানে ঢাকাই চলচ্চিত্রে আরও যারা অভিনয় করে নির্মাতাদের আশার আলো দেখাচ্ছেন তারা হলেন- মৌমিতা, দিপালী, অমৃতা খান, রথী, রিক্তা, ফারজানা, সোনিয়া, রজনী, লাবণ্য, সানিত, মারিয়া, টিংকিসহ অনেকে।

২০১২ সালে লাক্স চ্যানেল আই সুন্দরী প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়া পিয়া বিপাশা নাটক ও মডেল হিসেবে কাজ করার পর গত বছর একটি চলচ্চিত্রে কাজ করেছেন। এটি হলো ‘রুদ্র দ্য গ্যাংস্টার’। বর্তমানে বেশকিছু চলচ্চিত্রে তার অভিনয়ের বিষয়ে কথা চলছে।

অভিনেত্রী এবং মডেল মুন কাজ করছেন বদরুল আলম সৌদের ‘গহীন বালুচর’এ। এই চলচ্চিত্রে দুই নায়িকার মধ্যে তিনি হলেন একজন। অন্যজন লাক্স চ্যানেল আই সুন্দরী-২০১৪ প্রতিযোগিতার দ্বিতীয় রানারআপ নীলাঞ্জনা নীলা। তিনিও অভিনয় করেছেন ‘গহীন বালুচর’ এর অন্যতম আরেকটি চরিত্রে। এটি মুক্তির পর দুজনেরই অভিনয়ের প্রশংসা করেন দর্শক। তাই দুজনেরই সমান চাহিদা তৈরি হয়েছে।

আস/এসআইসু

Facebook Comments Box