ধামরাইয়ে উত্ত্যক্তকরায় ১৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা, আটক ১

মো: মনোয়ার হোসেন রুবেল,ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি

ঢাকার ধামরাইয়ে স্কুলছাত্রীদের উত্ত্যক্তকারী ছেলেদের বিরুদ্ধে অবশেষে মামলা দায়ের করা হয়েছে। উত্ত্যক্তের শিকার এক ছাত্রীর বাবা হাসান আলী বাদী হয়ে ছয় জনের নাম উল্লেখ ও ছয় থেকে সাতজনকে অজ্ঞাতনামা আসমি করে একটি মামলা দায়ের করেছেন।

আসামিরা হলেন ছোট কালামপুর আশ্রয়ন প্রকল্পের বাসিন্দা আলামিন, আবদুর রহমান, জুয়েল হোসেন, হৃদয়, মিজান ও জাহাঙ্গীর। এই ঘটনায় জাহাঙ্গীরকে গত শুক্রবার (১০ মে) রাতে আটক করেছে পুলিশ। আটক জাহাঙ্গীর ছোট কালামপুর আশ্রয়ন প্রকল্পের বাসিন্দা ফজল হক ওরফে ধুনকর ফজলার ছেলে। পরে শনিবার (১১ মে) তাকে পাঁচদিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে প্রেরণ করেছে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এস আই মলয় কুমার সাহা।

এ বিষয়ে ধামরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দীপক চন্দ্র সাহা বলেন, শুক্রবার রাতে অভিভাবকদের পক্ষে হাসান আলী বাদী হয়ে ১৩ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন। এরমধ্যে একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত আছে।

সোমভাগ ইউনিয়নের দেপাশাই কারাবিলের কয়েক ছাত্রী কালামপুর আমতন নেছা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে যাতায়াতের সময় ছোট কালামপুর আশ্রয়ন প্রকল্পের সাত থেকে আট জন ছেলে প্রায় দিনই বাজে ধরনের কথা বলে উত্ত্যক্ত করে আসছিল। এ ঘটনার প্রতিবাদ করলে এক ছাত্রীর ভাই ও মামাকে মারধর করে তারা। এ ঘটনায় দু’দফা মারধর ঘটনা ঘটে গত সোমবার। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বখাটে ছেলেরা উল্টো ১৩ জন অভিভাবকের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। পরে অভিভাবকদের বাড়িতে অভিযান চালায় পুলিশ।

এর আগে ছাত্রীদের পক্ষ থেকে গত বুধবার এক ছাত্রী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ধামরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকার্তা বরাবর লিখিতভাবে ইভটিজিং থেকে পরিত্রাণের জন্য আবেদন করে। কিন্তু তিনদিন পেরিয়ে গেলেও প্রশাসনের পক্ষ থেকে কোন পদক্ষেপ নেয়নি বলে অভিভাবকদের অভিযোগ ছিল। এ নিয়ে শনিবার দৈনিক কালের কণ্ঠে ‘ধামরাইয়ে ছাত্রীদের উত্ত্যক্তের ঘটনায় মারামারি অভিভাবকদের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হয়।

আস/এসআইসু

Facebook Comments Box