দেশের গণতন্ত্রের এরিস্টটলকে বন্দি করে রেখেছে সরকার: দুদু

আলোকিত সকাল ডেস্ক

দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে বিএনপি ইতোমধ্যে মাঠে নেমেছে জানিয়ে কৃষক দলের আহ্বায়ক ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু বলেছেন, আন্দোলন শুরু হয়েছে, নেত্রীকে মুক্ত করে গণতন্ত্রকে মুক্ত করে মানুষের অধিকার ফিরিয়ে দিয়ে আমরা ঘরে ফিরব। রাস্তার এ আন্দোলনকে বেগবান করার জন্য বরিশালে আমরা সমাবেশ করেছি। আজ সমাবেশ হবে চট্টগ্রামে, ২৫ তারিখে হবে খুলনায় এবং পর্যায়ক্রমে সব বিভাগে হবে। এরপরে সব জেলায় সমাবেশ করা হবে।

তিনি বলেন, ভাবতে কষ্ট হয়। যে নেত্রী বাংলাদেশের গণতন্ত্রের এরিস্টটল, বাংলাদেশের কৃষক শ্রমিক মেহনতী মানুষের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেত্রী। যিনি বাংলাদেশের গণমানুষের কাজ করার জন্য অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন, নারী শিক্ষা ক্ষেত্রকে অনন্য স্থানে নিয়ে গেছেন। যিনি এ দেশের মেহনতী মানুষ কৃষকদের জন্য কাজ করেছেন ক্ষমতার বাইরে থেকেও এবং সেই দেশনেত্রীকে বন্দি করে রেখেছে একটি মিথ্যা বানোয়াট মামলায় তথা কথিত বিচারের নামে একটি ভয়ঙ্কর পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে।

শনিবার (২০ জুলাই) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে প্রতীকী অনশনে এসব কথা বলেন দুদু। জিয়া পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির উদ্যোগে এই প্রতীকী অনশনের আয়োজন করা হয়।

ছাত্রদলের সাবেক এ সভাপতি বলেন, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার জন্য এবং এ সরকারের অত্যাচার যারা সহ্য করেছেন তাদের জন্য ইতোমধ্যে বিএনপি রাস্তায় নেমেছে। নেত্রীকে মুক্ত করে গণতন্ত্রকে মুক্ত করে মানুষের অধিকার ফিরিয়ে দিয়ে আমরা ঘরে ফিরব।

তিনি বলেন, শিক্ষকরা পেটের তাগিদে রাস্তায়, সাংবাদিকদের চাকরির নিশ্চয়তা নেই, শ্রমিকের শ্রমের মূল্য নেই। আদালতে গিয়ে বিচারকের সামনে সন্ত্রাসীরা খুন করছে -এ দেশে পুলিশ প্রশাসন, বিচার ব্যবস্থা, আইন-শৃঙ্খলা সবকিছু ভেঙে পড়েছে। এ দেশে স্বাভাবিক কোনো নির্বাচন হয় না। জাতীয় সংসদ নির্বাচন, পৌরসভা, উপজেলাসহ কোনো নির্বাচনই স্বাভাবিকভাবে হয় না।

দুদু বলেন, আজ দেশে ধর্ষণের যেন উৎসবে পরিণত হয়েছে। শিশু থেকে বৃদ্ধ পর্যন্ত আমার মা-বোনেরা কেউ রেহাই পাচ্ছে না। ঘর থেকে বের হতে পারছে না নিরাপত্তার অভাবে। এ দেশে মহিলা পরিষদ যেগুলো সংগঠন আছে এক সময় তারা একটা ধর্ষণের জন্য সারাদেশ তোলপাড় করেছে কিন্তু দুঃখের বিষয় হলো এখন তাদেরকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।

বিএনপির এ নেতা বলেন, আসুন শুধু দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য নয়; এ দেশে একটি সুষ্ঠু পরিবেশ ফিরিয়ে আনার জন্য, গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনার জন্য, মানুষের অধিকার ফিরিয়ে আনার জন্য রাস্তায় নামি।

আয়োজক সংগঠনের চেয়ারম্যান কবির মুরাদের সভাপতিত্বে এবং সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব আব্দুল্লাহ হিল মাসুদেরর সঞ্চালনায় বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুল কুদ্দুস, সংগঠনের মহাসচিব ড. মমতাজ হোসেন, ভাইস চেয়ারম্যান মো. শফিকুল ইসলাম, কৃষক দলের সদস্য লায়ন মিয়া মো. আনোয়ার, কে এম রকিবুল ইসলাম রিপন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আস/এসআইসু

Facebook Comments