ঝিনাইদহে ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে মায়ের মৃত্যু

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

ঝিনাইদহ সদর উপজেলার বৈডাঙ্গা উত্তর পারায় ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে মায়ের করুন মৃত্যু হয়েছে।

সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, মঙ্গলবার সকাল ৬ টায় সোলাইমান মিয়ার ছেলে সামিউল্লাহ (২) সকালে ঘরের পাশে খেলতে যায়। বিদ্যুৎ লাইনের তার ছিল লিক। এ সময় শিশু সামিউল্লাহর শরিরে তার স্পর্শ করে। সাথে সাথে বিদ্যুৎ সঞ্চালিত হয় সামিউল্লাহর শরিরে। সামিউল্লাহর কোন আওয়াজ না পাওয়ায় মা ফরিদা খাতুন (২৫) ঘরের বাইরে যেয়ে দেখে সামিউল্লাহকে তারের সাথে আটকে থাকতে। সে সময় সামিউল্লাহকে বাঁচাতে গিয়ে ঘরে টানা দেওয়া জি আই তারে আটকে যায় মা ফরিদা। ঘটনাস্থলে মারা যায় ফরিদা খাতুন (২৫)।

সামিউল্লাহর দাদা ইসমাইল মিয়া অশ্রু ভেজা চোখে জানান, ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে পুত্রবধুকে কে হারাতে হল আমাদেরকে। কে জানতো এমন হবে,কথা গুলা বলতে বলতে সে সময় কান্নায় ভেঙে পড়েন ফরিদা খাতুনের শশুর ইসমাইল মিয়া। এদিকে মৃত ফরিদা খাতুনের এক মাত্র সন্তান সামিউল্লাহ ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি আছে।
ছেলে কে বাঁচাতে গিয়ে মায়ের এমন করুন মৃত্যুতে ফরিদা খাতুনের পরিবারে ও বৈডাঙ্গা গ্রামে যেন শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

আস/এসআইসু

Facebook Comments Box