ছোট বেলা থেকেই জাপান মোহ কাজ করত: প্রধানমন্ত্রী

আলোকিত সকাল ডেস্ক

আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, শৈশব থেকেই জাপান নিয়ে আমার এক ধরনের মোহ কাজ করত। সেই মোহ আজও বিদ্যমান। আমি জাপানি চিত্রকলা, ক্যালেন্ডার, ডাক টিকিট, পুতুল ইত্যাদি সংগ্রহ করতাম। জাপান সবসময়ই আমার হৃদয়ের কাছে।

জাপানে রাষ্ট্রীয় সফর শুরুর আগে মঙ্গলবার (২৮ মে) দেশটির শীর্ষ গণমাধ্যম দ্য জাপান টাইমসে প্রকাশিত এক নিবন্ধে এভাবেই নিজের অনুভূতির কথা তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

‘উন্নয়নের জন্য জাপান-বাংলাদেশের অংশীদারিত্ব’ শিরোনামে এ নিবন্ধে তিনি ‘বাংলাদেশকে আরেকটি জাপান হিসেবে গড়তে’ তার বাবার আকাঙ্ক্ষার কথা তুলে ধরেন।

শিশুকাল থেকে জাপানকে নিয়ে নিজের আবেগের কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বঙ্গবন্ধুর কাছ থেকে এটা তার মধ্যে প্রবাহিত হয়েছে। বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশকে জাপানের আদলে গড়তে চেয়ে ছিলেন। সেই স্বপ্নই আমাদের মাঝে কাজ করে।

জাপন টাইমসের নিবন্ধে ‘কৃষিভিত্তিক অর্থনীতি থেকে সেবা ও শিল্প খাতনির্ভর প্রবৃদ্ধির পরিক্রমায়’ বাংলাদেশের রূপান্তরের কালে জাপানি বিনিয়োগকারীদের আমন্ত্রণ জানান তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, নতুন এই যুগ আমাদের আরও কাছে টানুক, সম্পর্ক গভীরতর করুক এবং আমাদের শিশুদের জন্য নিরাপদ ও সমৃদ্ধ দেশ গড়তে সহায়তা করুক।

নিবন্ধে জ্বালানি ও খাদ্য নিরাপত্তা এবং মানুষের উন্নততর জীবনমান নিশ্চিত করতে চলমান বৃহৎ অবকাঠামো উন্নয়ন কর্মসূচির গুরুত্ব তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনা বলেন, দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে বাংলাদেশই বিনিয়োগের সবচেয়ে উদার ও উপযোগী পরিবেশের সুযোগ দিচ্ছে। আমরা চাই জাপন সেই সুযোগ সর্বোচ্চ ভাবে গ্রহণ করুক।

উল্লেখ্য, ২৮-৩০ মে টোকিও রাষ্ট্রীয় সফরের জন্য আজ মঙ্গলবার সকালে ঢাকা ছেড়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তৃতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় আসার পর এটাই জাপানে তার প্রথম সফর।

আস/এসআইসু

Facebook Comments