চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন চেম্বার অফ কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি এর উদ্যোগে ভোগ্য পণ্য বিক্রয় কার্যক্রম উদ্বোধন

পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন চেম্বার অফ কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি (সিএমসিসিআই) এর উদ্যোগে গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১০:০০ ঘটিকায়, গরীব ও দুস্থ মানুষের জন্য ভর্তুকি মূল্যে অক্সিজেনস্থ কেডিএস গার্মেন্টস্ এর সম্মুখে ২য় ভোগ্য পণ্য বিক্রয় কার্যক্রম উদ্বোধন করা হয়। প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে বিক্রয় কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম-১৪ আসনের মাননীয় সাংসদ জনাব আলহাজ¦

নজরুল ইসলাম চৌধুরী, এম.পি। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন সিএমসিসিআই সভাপতি জনাব খলিলুর রহমান, সহ-সভাপতি জনাব এ.এম. মাহবুব চৌধুরী এবং পরিচালক জসিম উদ্দিন চৌধুরী সহ মেট্রোপলিটন চেম্বারের সদস্য, প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিক এবং গণমান্য ব্যক্তিবর্গ।

সিএমসিসিআই সহ সভাপতি জনাব এ.এম. মাহবুব চৌধুরী তার বক্তব্যে বলেন, গত ১৬ মে শনিবার আগ্রাবদস্থ সিএমসিসিআই কার্যালয়ের সম্মুখে ১ম পর্যায়ে ভর্তুকি মূল্যে বিক্রয় কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মাননীয় মেয়র জনাব আ.জ.ম নাছির উদ্দীন।

আজ ২য় পর্যায়ের বিক্রয় কার্যক্রম শুরু করতে যাচ্ছি। প্রতি বছর দুস্থ ও গরীব মানুষের সুবিধার্থে রমজানে ভর্তুকি মূল্যে বিক্রয় কার্যক্রম চালু করে থাকি। এ বছরও আমরা কার্যক্রমের ধারাবাহিকতায় চাল, চিনি ও তেল ভর্তুকি মূল্যে সাধারন মানুষের মধ্যে বিক্রয় করছি। পরিচালক জনাব জসিম উদ্দিন চৌধুরী তার বক্তব্যে বলেন, সাধারন মানুষের হাতের নাগালে যাতে এ রমজানে প্রয়োজনীয় ভোগ্যপণ্য ভর্তুকি মূল্যে পেতে পারে তার জন্য আমরা এ বিক্রয় কার্যক্রম প্রতিবারের মতো এবারও চালু করেছি। আশাকরি আগামীতেও এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

সিএমসিসিআই সভাপতি জনাব খলিলুর রহমান, তার স্বাগত বক্তব্যে বলেন উপস্থিত সুধীমন্ডলী আমরা আজকের এ অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম ১৪ আসনের সম্মানিত সাংসদ জনাব মো: নজরুল ইসলাম চৌধুরীকে পেয়ে অত্যন্ত আনন্দিত হয়েছি। এ জন্য তিনি সিএমসিসিআই’র পক্ষ থেকে মাননীয় সাংসদের নিকট আন্তরিক কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। উপস্থিত সুধীমন্ডলী আপনারা এ বিক্রয় কেন্দ্র থেকে প্রতিদিন বেলা ১১টা থেকে বেলা ২টা পর্যন্ত চাল, চিনি এবং তেল ভর্তুকি মূল্যে ক্রয় করতে পারবেন। আপনারা আমাদের দোয়া করবেন, আমরা যেন আগামীতেও এ ধরনের জন কল্যাণমূলক কাজ করতে পারি। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি সাংসদ আলহাজ¦ নজরুল ইসলাম চৌধুরী তার বক্তব্যে বলেন সিএমসিসিআই কর্তৃক এ ধরনের মহতী উদ্যোগ গ্রহন করায় আমি আন্তরিকভাবে খুশি হয়েছি। তিনি সিএমসিসিআই কর্তৃপক্ষের ন্যায় রমজান মাসে সাধারণ মানুষের জন্য অন্যান্য ব্যবসায়ীদেরও এগিয়ে আসার জন্য উদাত্ত আহ্বান জানান। তাহলেই দেশ ও জাতির মঙ্গল হবে বলে আশা প্রকাশ করেন।

বিক্রয় কেন্দ্রে চাউলের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে প্রতি কেজি ২৫ টাকা, চিনি প্রতি কেজি ৪০ টাকা এবং ভোজ্য তেল প্রতি বোতল (১ লিটার) ৭০ টাকা। জনপ্রতি ২ কেজি চিনি, ৫ কেজি চাউল এবং প্রতি বোতল (১ লিটার) সয়াবিন তেল নির্ধারন করা হয়। বিক্রয় কার্যক্রম পুরো রমজান মাসে বেলা ১১টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত চলবে। বিজ্ঞপ্তি

আস/এসআইসু

Facebook Comments