কোহলি-রোহিতের বিদ্রোহের ইঙ্গিত, সমঝোতা প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান

আলোকিত সকাল ডেস্ক

বিশ্বকাপ ক্রিকেটে ভারতের প্রত্যাশিত সফলতা না আসার পর দলের দুই ক্রিকেটার বিরাট কোহলি এবং রোহিত শর্মার দ্বন্দ্বের বিষয়টি এখন চরম আকার ধারণ করেছে। বিষয়টি নিয়ে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই) সমঝোতা প্রস্তাবের মাধ্যমে বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা করলেও তা পণ্ড হয়ে গেছে। ফলে বিরাট কোহলি এবং রোহিত শর্মা যেকোনো সময় দলের ভেতর বিদ্রোহ করে বসতে পারেন বলে শঙ্কা দেখা দিয়েছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও বিষয়টি নিয়ে জল গড়িয়েছে। রোহিতের স্ত্রী ঋতিকাও কোহলি-আনুশকা দম্পতিকে ইনস্টাগ্রামে আনফলো করে দিয়েছেন। আনুশকাও রোহিত-ঋতিকাকে আর অনুসরণ করেন না। কোহলি অবশ্য এখনো রোহিতকে ফলো করছেন।

বিসিসিআইয়ের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে সেমিফাইনালে হারের পরে নয়, ইংল্যান্ডের বিপক্ষে পরাজয়ের পর থেকেই টিম ইন্ডিয়ায় সমস্যার সূত্রপাত হয়েছে।

তিনি বলেন, হারের জন্য বোলারদের দায়ী করা হয়েছিল। সেই সময় বোলারদের মনে হয়েছিল, কেবলমাত্র বোলিংকে এই হারের জন্য দায়ী করা উচিত হবে না। বোলারদের দিকে আঙুল তোলার আগে আরও কিছু বিষয়ে খতিয়ে দেখার প্রয়োজন ছিল।

বিসিসিআইয়ের ওই কর্মকর্তা আরও বলেন, বোর্ডের পক্ষ থেকে আলোচিত দুই ক্রিকেটারের একজনের কাছে প্রস্তাব রাখা হয়েছিল, যাতে তিনি নিজের অ্যাকাউন্টে লেখেন, ড্রেসিংরুমের পরিস্থিতি একদমই স্বাভাবিক আছে, কোনো সমস্যা নেই- এমনটি লেখার জন্য। কিন্তু সেই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে দেন সেই ক্রিকেটার। প্রত্যেকেই বুঝতে পারছে ড্রেসিংরুমে দুশ্চিন্তা ক্রমশ গ্রাস করছে।

সেমিফাইনালে হারের পর ভারতের বেশ কয়েকটি সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে জানা যায়, দল নির্বাচনে নেতিবাচকভাবে দাপট দেখিয়েছেন বিরাট কোহলি। অধিনায়কের এই দাপট দেখানো মোটেই সহ্য হয়নি সহ-অধিনায়ক রোহিত শর্মার। এরপর থেকেই দলের ভেতর নাকি এই দুই ক্রিকেটারকে আবর্তিত করে গ্রুপিং সৃষ্টি হয়ে যায়।

আস/এসআইসু

Facebook Comments