কুশাখালীতে বেড়া দিয়ে রাস্তা বন্ধ, দুর্ভোগে স্কুল পড়ুয়া ছাত্র ছাত্রিসহ ৯ পরিবার

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি : দীর্ঘ ৩৫ বছরের পুরোনো গ্রামীণ রাস্তায় জোর করে কাটা ও পিলার দিয়ে বেড়া দিয়েছেন কয়েকজন স্থানীয় প্রভাবশালী। এতে প্রায় ৯ পরিবারের অর্ধ্বশতাধিক মানুষ চলাচল করতে পারছেন না। দূর্ভোগে পড়েছে স্কুল ও মাদ্রাসা পড়–য়া ছাত্র ছাত্রিরা,অন্যদিকে ফসলি জমিতে যেতে পারছেন না কৃষকরা। লক্ষ্মীপুরের কুশাখালি ইউনিয়নের নুর খাঁ গ্রামে ঘটনাটি ঘটেছে। ফলে চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে ভুক্তভোগী লোকজনের।
ভুক্তভোগী ইসরাফিল বলেন, আমরা এ রাস্তা দিয়ে ৩০-৩৫ বছর যাবত চলাচল করে আসছি। রাস্তার মালিকানা দাবি করে শনিবার জাবেদ, হারুন ও মালেকরা পিলার ও কাটা দিয়ে বেড়া দেন। এতে বন্ধ হয়ে যায় চলাচল।
তিনি আরও বলেন, জাবেদরা আমাদের কোনো কথাই শুনছে না। তাইতো বাধ্য হাটু পানিতে ভিজে অন্যর ফসলি জমির উপর দিয়ে জরুরি প্রয়োজনে চলাচল করছি। তাছাড়া এ রাস্তা দিয়ে মাঠে যায় এখানকার কৃষকরাও। বর্তমানে আমরা চরম দুর্ভোগের মধ্যে পরিবার নিয়ে বসবাস করছি। সমস্যাটি সমাধানে আমরা প্রশাসনের হস্তাক্ষেপ কামনা করছি।
দখলের বিষয়ে জাবেদ হোসেন বলেন, রাস্তার জায়গাটি আমাদের জমির মধ্যে পড়েছে। এজন্য বেড়া দিয়েছি।
স্থানীয় ইউপি সদস্য বলেন, রাস্তায় বেড়া দিয়ে চলাচল বন্ধ করার বিষয়টি শুনেছি। সমস্যাটি সমাধানের জন্য একটি বৈঠকও করেছি। কিন্তু জাবেদরা সে বৈঠকের সিদ্ধান্ত অমান্য করে নিজেদের সম্পদ দাবি করে রাস্তায় বেড়া দিয়েছেন। অথচ এ জাবেদরাই গত দুই বছর পূর্বে আমার কাছে গিয়েছেন রাস্তাটি ইটের সলিং করার জন্য। কিন্তু বরাদ্ধ না থাকায় তখন রাস্তার উন্নয়ন করা সম্ভব হয়নি।

Facebook Comments Box