ঈদের দিনে চোখের জ্বলে চিরবিদায় জানালেন হাফিজ জামাল উদ্দিন

স্টাফ রিপোর্টার

সিলেটের শুকরিয়া মার্কেটের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সিলেট ফেব্রিক্স এর স্বত্বাধিকারী কমর উদ্দিনের ছোট ভাই ও গোয়ালা বাজার সিকন্দরপুর জামে মসজিদের প্রক্তন ইমাম জকিগঞ্জ উপজেলার সুলতানপুর ইউনিয়নের হাফিজ জামাল উদ্দিনের দাফন সম্পন্ন হয়েছে।

হাফিজ জামাল উদ্দিন আজ বুধবার ভোর ৪:১০ মিনিটের সময় নিজ বাড়ীতে ইন্তিকাল করেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৫ বছর। তিনি স্ত্রী, ২ ছেলে, ৩ মেয়ে ও আত্মীয়স্বজন এবং বহু গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

আজ বুধবার বিকাল ২_টায় সখড়া জামে মসজিদে ঈদগাহ মাঠে জানাযা নামাজ শেষে গ্রামের পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়। এদিকে তার মৃত্যুতে গভীর শোক ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও প্রবাসীরা। মরহুমার নামাজে ইমামতি করেন তাহার কনিষ্ঠ ভাতিজা সিলেট শহরস্থ কৃষি ব্যাংকের ম্যানেজার আলী আকবর।

জানাযায় অংশগ্রহণ করে শোক প্রকাশ করেন এবং তার শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান জকিগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব লোকমান উদ্দিন চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা আব্দুস সবুর, কৃষক লীগের সভাপতি আব্দুল আহমদ, সিলেটের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী জয়নুল আবেদীন, ইউপি সদস্য আব্দুল খালিক, মোঃ মনির উদ্দিন, বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ আফতাব হোসেন, লুৎফুর রহমান, থানাবাজার মাদ্রাসার সহ-শিক্ষক আব্দুল মালিক, শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র স্বপ্ন আহমদ, সমাজ সেবক শিহাব উদ্দিন, সখড়া জামে মসজিদ কমিটির সভাপতি আব্দুর রশিদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা আমির আলী, সেক্রেটারী আনোয়ার হোসেন, মারুফ আহমদ প্রমূখ।

সাংবাদিক আহসান হাবীব লায়েক এক শোক বাণীতে বলেন, মরহুম হাফিজ জামাল উদ্দিন সখড়া জামে মসজিদের এক নিবেদিতপ্রাণ কর্মী ছিলেন। তিনি অত্যন্ত আন্তরিক ও নিষ্ঠার সাথে সখড়া জামে মসজিদের কোষাধ্যক্ষের দায়িত্ব পালন করে গেছেন। তাঁর এই কর্তব্য-নিষ্ঠা স্মরণীয় হয়ে থাকবে। আল্লাহ রাববুল আলামিন তাঁর খেদমত কবুল করুন এবং তাকে জান্নাতুল ফেরদাউস দান করুন। আল্লাহ তাঁর শোকসন্তপ্ত পরিবারকে এই শোক সহ্য করার তাওফিক দিন। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

আস/এসআইসু

Facebook Comments Box