ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় নানা ভাবে নিজেকে বিকশিত করে চলেছে,ইবি উপাচার্য

আব্দুল্লাহ আল মুকিত, ইবি প্রতিনিধি

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্তঃবিভাগ ব্যাডমিন্টন, টেবিল টেনিস ও বাস্কেটবল প্রতিযোগিতা ২০১৮-১৯ এর পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান আজ(২৩ জুলাই) বিশ্ববিদ্যালয় জিমনেশিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়। উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ শাহিনুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ হারুন-উর-রশিদ আসকারী,এসময় তিনি বলেন আলোচনা সভা, সেমিনার, সিম্পোজিয়াম, খেলাধুলা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানসহ বছরব্যাপী বিভিন্ন আয়োজনের মধ্যদিয়ে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী ২০২০ “মুজিববর্ষ” উদযাপন করা হবে।

বর্তমানে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় দেশের মধ্যে একটি অন্যতম সেরা বিদ্যাপীঠ হিসেবে নানা ভাবে নিজেকে বিকশিত করে চলেছে। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার ও বিশিষ্ট ক্রীড়াবিদ অধ্যাপক ড. মোঃ সেলিম তোহা বলেন, ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রীড়াঙ্গন একটি বিশ্বের বিস্ময়।

জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক পর্যায়ে আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্ব্বোচ্চ অর্জন এসেছে ক্রীয়া বিভাগের মাধ্যমে। সভাপতির বক্তব্যে উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ শাহিনুর রহমান বলেন, খেলাতে জয়-পরাজয় বড় কথা নয়। আমরা প্রতিটি দলের চমৎকার খেলা উপভোগ করেছি। আলোচনা শেষে অতিথিবৃন্দ আন্তঃবিভাগ ব্যাডমিন্টন, টেবিল টেনিস ও বাস্কেটবল প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন। এ প্রতিযোগিতায় ব্যাডমিন্টন (ছাত্রী) চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ইনফরমেশন এন্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ এবং রানার-আপ হয়েছে মার্কেটিং বিভাগ।

ব্যাডমিন্টন (ছাত্র) যৌথ চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিভাগ ও ইনফরমেশন এন্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ। টেবিল টেনিস (ছাত্রী) চ্যাম্পিয়ন হয়েছে কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ এবং রানার-আপ হয়েছে ইনফরমেশন এন্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ। টেবিল টেনিস (ছাত্র) চ্যাম্পিয়ন হয়েছে কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ এবং রানার আপ হয়েছে আইন বিভাগ। এছাড়া বাস্কেটবল চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিভাগ এবং রানার আপ হয়েছে ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগ।

Facebook Comments