আ.লীগ প্রার্থীর প্রচারণায় ৩ লাখ টাকা দেয়ার ঘোষণা বিএনপি নেতার

নিজস্ব প্রতিনিধি ঃ আ.লীগ প্রার্থীর প্রচারণায় ৩ লাখ টাকা দেয়ার ঘোষণা দিলেন  বিএনপি নেতা, আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সভায় বিএনপি নেতা কামরুজ্জামান সোহেল (গোল চিহ্নিত)
লক্ষ্মীপুর-২ আসনের উপ-নির্বাচনে প্রার্থীদের আজ বৃহস্পতিবার প্রতীক বরাদ্দের মাধ্যমে শুরু হচ্ছে প্রচার-প্রচারণা। এরমধ্যেই বিভিন্ন ইউনিয়নে নির্বাচন পরিচালনা কমিটি গঠন করছে আওয়ামী লীগ। সদর উপজেলার দালাল বাজার ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির যুগ্ম-আহ্বায়ক করা হয়েছে বিএনপি নেতা কামরুজ্জামান সোহেলকে। বুধবার (২৪ মার্চ) সন্ধ্যায় দালাল বাজার কলেজে আয়োজিত সভায় সোহেল উপস্থিত থেকে নৌকার প্রার্থীর ব্যয়ের জন্য তিন লাখ টাকা দেয়ার ঘোষণাও দিয়েছেন।উনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্যসচিব নুরুজ্জামান মাস্টার সাংবাদিকদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। দলীয় সূত্র জানায়, আওয়ামী লীগের প্রার্থী অ্যাডভোকেট নুরউদ্দিন চৌধুরী নয়ন নির্বাচন পরিচালনা কমিটির বৈঠক ডাকেন। সেখানে উপস্থিত থেকে বিএনপি নেতা সোহেল নির্বাচনের জন্য তিন লাখ টাকা ব্যয় করবেন বলে ঘোষণা দেন। পরে সভায় দালাল বাজার ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক করা হয় নুরনবী চৌধুরীকে। এছাড়া কামরুজ্জামান সোহেলকে যুগ্ম-আহ্বায়ক ও নুরুজ্জামান মাস্টারকে সদস্যসচিব করা হয়।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সোহেল সদর উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও দালাল বাজার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান। তিনি জেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাহাব উদ্দিন সাবুর ভাগিনা।

এ প্রসঙ্গে বিএনপি নেতা কামরুজ্জামান সোহেল বলেন, ‘আমাকে দাওয়াত দেওয়ায় সেখানে গিয়েছিলাম। নির্বাচনী খরচের জন্য সবাই টাকা দিবে বলছে। এখানে আমার নামটাও এসেছে।’

কুয়েতে দণ্ডপ্রাপ্ত কাজী শহীদ ইসলাম পাপুলের লক্ষ্মীপুর-২ আসনে ১১ এপ্রিল উপ-নির্বাচন হবে। এদিন রায়পুর ও সদর উপজেলার ১৯টি ইউনিয়নের চার লাখ ২ হাজার ৯৬৩ জন ভোটার ইভিএমের মাধ্যমে ভোট দেবেন। নির্বাচনে দলীয় প্রতীকে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুরউদ্দিন চৌধুরী নয়ন ও জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় সদস্য ফায়িজ উল্যাহ শিপন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। বৃহস্পতিবার (২৫ মার্চ) প্রতীক বরাদ্দের পর প্রচার-প্রচারণা শুরু হচ্ছে।

২৪ মার্চ প্রত্যাহারের শেষদিন আরেক প্রার্থী বাংলাদেশ কংগ্রেসের ঢাকা মহানগরের আহ্বায়ক আবুল কালাম আজাদ নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন।

Facebook Comments Box