আখাউড়ায় এক গৃহবধুর লাশ উদ্ধার

মো:সাইফুল ইসলাম আখাউড়া

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া মোগড়া ইউনিয়নের নয়াদিল গ্রামে রোকেয়া বেগম (৪৫) নামে এক গৃহবধুর লাশ উদ্ধার হয়েছে।

স্বামীর সাথে অভিমান করে গলায় রশি পেচিয়ে এই গৃহবধু আত্মহত্যা করেছে বলে পুলিশ ও স্থানীয়রা জানিয়েছেন। নিহত রোকেয়া বেগম আখাউড়া নয়াদিল গ্রামের উত্তরপাড়ার নুর ইসলামের স্ত্রী।

স্থানীয়রা জানায়, গতকাল শুক্রবার রোকেয়া বেগমের সাথে প্রতিবেশী এক মহিলার ঝগড়া হয়। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে স্বামী নুর ইসলাম তাকে গালমন্দ করে। পরে স্বামীর সাথে অভিমান করে রোকেয়া চলে যায় তার মেয়ের বাড়ি আখাউড়া মনিয়ন্দ ইউনিয়নের শিবনগর গ্রামে।

আজ শনিবার সকালে স্বামীও চলে যায় কুমিল্লাতে। এই ফাকে আজ দুপুর অনুমান ১টায় রোকেয়া বেগম মেয়ের বাড়ি থেকে নিজের বাড়িতে এসে বসত ঘরে গলায় দড়ি পেচিয়ে আত্মহত্যা করে বলে স্থানীয়রা ধারণা করছে।

এ ব্যাপারে আখাউড়া থানার এস আই জসিম উদ্দিন জানান, নিজের বসত ঘরে গলায় দড়ি পেচিয়ে ফাসিতে ঝুলন্ত অবস্থায় রোকেয়া বেগমের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তার শরীরে কোন জখমের চিহ্ন ছিল না। গলায় রশি পেচিয়ে রোকেয়া বেগম আত্মহত্যা করেছে বলে প্রাথমিক ভাবে তিনি ধারণা করছেন।

তিনি আরো বলেছেন, ময়নাতদন্তের জন্য রোকেয়া বেগমের লাশ ব্রাহ্মণবাড়িয়া মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর রোকেয়া বেগমের মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে বলেও তিনি জানিয়েছেন।

আস/এসআইসু

Facebook Comments Box