অবশেষে বাতিল হলো বনলতার বাধ্যতামূলক খাবার

নিহাল খান,রাজশাহী প্রতিনিধি

রাজশাহী-ঢাকা-রাজশাহী রুটের একমাত্র বিরতিহীন আন্তঃনগর ‘বনলতা এক্সপ্রেস’ ট্রেনের যাত্রীদের জন্য বাধ্যতামূলক খাবার অবশেষে বাতিল হলো। শনিবার থেকে যাত্রীদের আর খাবার পরিবেশন করা হচ্ছে না। তবে ট্রেনটিতে খাবারের দুটি বগি থাকছে। যাত্রীরা চাইলে খাবার কিনে খেতে পারবেন।

বনলতার বাধ্যতামূলক খাবার বাতিলের পর এখন শোভন চেয়ারের ভাড়া হয়েছে ৩৭৫ টাকা এবং স্নিগ্ধা (এসি চেয়ার) ৭২৫ টাকা। তবে ট্রেনটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনের পর বাধ্যতামূলক ১৫০ টাকার খাবারসহ টিকিটের দাম নেওয়া হচ্ছিল শোভন ৫২৫ টাকা এবং স্নিগ্ধা ৮৭৫ টাকা।

এদিকে গত ২৫ এপ্রিল বনলতা এক্সপ্রেসে বাধ্যতামূলক খাবার নিয়ে ট্রেনটি উদ্বোধনের পর থেকেই যাত্রীসহ সব শ্রেণীর মানুষের মধ্যেই সমালোচনার ঝড় ওঠে। টিকিটের সঙ্গে খাবারের জন্য অতিরিক্ত ১৫০ টাকা নেওয়ায় সমালোচনা শুরু হওয়ায় রাজশাহী-২ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা বিষয়টি পুনর্বিবেচনার জন্য রেল মন্ত্রণালয়কে অনুরোধ করেন।

পরে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ও রাজশাহী-৬ আসনের সংসদ সদস্য শাহরিয়ার আলমও একই দাবি জানান। তাদের সঙ্গে একমত পোষণ করেন রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন।

পরে রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন বনলতা এক্সপ্রেসের টিকিটের মূল্যের সাথে খাবারের যে মূল্য যোগ করা ছিল তা বাতিলের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন। ওই সিদ্ধান্তের প্রেক্ষিতেই বাতিল হলো বাধ্যতামূলক খাবার। ফলে কমল টিকিটের দাম।

আস/এসআইসু

Facebook Comments